দশমীতে নাশকতার আশঙ্কা! জেলাগুলিকে সতর্ক থাকতে বলল নবান্ন

পুজোর দিনগুলিতে নাশকতার আশঙ্কা প্রকাশ করে আগেই সতর্কবার্তা জারি করেছিল নবান্ন। পুলিশ প্রশাসনের পাশাপাশি পুজো উদ্যোক্তাদেরও সজাগ থাকতে বলা হয়েছিল। প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ভোলেন্টিয়ারদের চোখ কান খোলা রাখতে বল হয়, কোনও সন্দেহজনক গতিবিধি দেখলেই যেন তৎক্ষণাৎ পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁরা। এই মর্মে মহাষষ্ঠীর দিন ফের একবার কলকাতার পাশাপাশি সমস্ত জেলাগুলিতে সতর্কবার্তা পাঠালো নবান্ন। 

নবান্ন সূত্রে খবর, পুজোর চার দিন, বিশেষত বিসর্জনের দিন নাশকতার ঘটনা ঘটতে পারে। নবান্নের নির্দেশে বলা হয়েছে, উৎসবের দিনগুলিতে প্রশাসনের সর্বস্থর থেকে কড়া নজরদারি চালানোর ব্যবস্থা করতে হবে। বলা হয়েছে, কোনও রকম আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমস্যা হলেই যেন কড়া হাতে তা মোকাবিলা করা হয়। প্রয়োজনে জায়গায় জায়গায় নাকা চ্যাকিং-এর ব্যবস্থাও করতে বলা হয়েছে। পরিস্থিতি গুরুতর কিছু হলে তা যেন দ্রুত নবান্নে জানানো হয়। 

এদিকে নবান্নে ২৪ ঘন্টার জন্য একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। নবান্ন থেকে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সর্বক্ষণ যোগাযোগ রাখা হয়েছে। জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদীর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ রাখছেন নিয়মিত। খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে সব পরিস্থিতির খবর নিচ্ছেন। 

কলকাতার পাশাপাশি জেলার পুজোগুলিতেও মানুষের ঢল নেমেছে। মেদিনীপুর শহর থেকে শুরু করে শিলিগুড়ি, জেলার বিখ্যাত প্যান্ডেলে উৎসবের চেনা ছবি ধরা পড়েছে। করোনার আতঙ্ক নিয়েই কলকাতাতেও ব্যাপক মানুষ রাস্তায় নেমেছে। 

Comments
Loading...