গতবারের তুলনায় এ বছর দ্বিগুণ সংখ্যক কর্মীকে প্রমোশন দিচ্ছে উইপ্রো! প্রধান মাপকাঠি ডিজিটাল স্কিল

বছরের শেষে সুখবর উইপ্রোর কর্মীদের। চলতি বছরের ডিসেম্বরেই ৫ হাজার কর্মীর পদোন্নতির সিদ্ধান্ত নিল ভারতের অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা উইপ্রো।
বর্তমান বাজারের কথা মাথায় রেখে ডিজিটাল স্কিল থাকা যুবক-যুবতীদের সংস্থায় টানতে বিশেষ আগ্রহ দেখিয়েছে উইপ্রো। পাশাপাশি, অভিজ্ঞতার প্রতিও যে তাদের সমান নজর, তারই প্রমাণ হিসেবে এবার রেকর্ড সংখ্যক কর্মীর পদোন্নতি করছে উইপ্রো। গত বছরের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ কর্মীকে এ বছর প্রমোশন দেওয়া হচ্ছে। যে ৫ হাজার কর্মীর পদোন্নতি হচ্ছে, তাঁদের প্রত্যেকের ৫ বছর থেকে ৮ বছরের অভিজ্ঞতা এবং ডিজিটাল স্কিলে বিশেষ পারদর্শিতা রয়েছে বলে জানাচ্ছে উইপ্রো।
সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য ইকনমিক টাইমস’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উইপ্রোর প্রেসিডেন্ট তথা মুখ্য এইচআরও সৌরভ গোভিল জানান, যে ৫ হাজার কর্মীকে মোটা মাইনে সহ প্রমোশন দেওয়া হচ্ছে, তাঁদের প্রত্যেকের ডিজিটাল স্কিল ও অভিজ্ঞতার বিচার করা হয়েছে।
বিশ্বজুড়েই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রয়োগ বাড়ছে। তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাগুলিও আস্তে আস্তে ডিজিটাল টেকনোলজির দিকে ঝুঁকছে। বিশ্বের বৃহত্তম আইটি হাবগুলি ক্লাউড কম্পিউটিং, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স পরিচালিত ব্যবস্থার ওপর নির্ভরতা বাড়াচ্ছে। এতে একদিকে কর্মী সংখ্যা কমার আশঙ্কা যেমন থাকছে, তেমনই ডিজিটাল স্কিলে অভিজ্ঞ ও পারদর্শী কর্মীর চাহিদাও উত্তোরত্তর বাড়ছে। তথ্যপ্রযুক্তির পাশাপাশি, এদেশে কাজ করা প্রচুর বহুজাতিক সংস্থাও ডিজিটাল স্কিল থাকা কর্মীদের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করছে। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে উইপ্রো, ইনফোসিসের মতো তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ৩ থেকে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কর্মীদের উপর আলাদা নজর দিয়েছে। তাই ডিসেম্বরে উইপ্রোর ৫ হাজার কর্মীর পদোন্নতির মাধ্যমে অভিজ্ঞদের উৎসাহ দিচ্ছে তারা।

Comments
Loading...