স্পুটনিক’ ভি এর দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের অংশগ্রহণ করতে চলেছে বাংলার ১২ জন!

কোভিড ভ্যাকসিনের দৌড়ে এগিয়ে সর্বপ্রথম ভ্যাকসিন বাজারে নিয়ে এসেছিল রাশিয়া। যদিও সেই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে কম জল ঘোলা করা হয়নি। সম্প্রতি ভারতে এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরু হয়েছে। চলতি মাস অর্থাৎ নভেম্বর এই এই ভ্যাকসিনের ২য় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু হওয়ার কথা। আর সেই ট্রায়ালে অংশ নিতে চলেছে বাংলার ১২ জন। এমনই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এখন এথিক্স কমিটির অনুমতি পেলেই এই পরীক্ষা শুরু করে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

এরাজ্যের সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজকে নির্বাচিত করেছে সংশ্লিষ্ট সংস্থা। এখন শুধু অনুমতির জন্য স্থগিত করে রাখা হয়েছে এই ট্রায়াল। অনুমতি পেলেই তা পুনরায় শুরু করে দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক মলয় মন্ডল এই ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে বলেন, “সাবধানতা সঙ্গে এগোনো প্রয়োজন। যেভাবে প্রচার হচ্ছিল তা ঠিক নয়। দ্বিতীয় ট্রায়াল শেষ হতে ডিসেম্বর হতেই পারে। অনেক বিজ্ঞানগত দিক আছে। তা দেখে শুনেই বিজ্ঞানী গবেষক চিকিৎসকেরা এগোচ্ছেন। যাঁরা বলছেন ‘এই ভ্যাকসিন চলে এল’, তাঁরা ঠিক কাজ করছেন না। ”

অন্যদিকে সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে যে ১২ জনের শরীরে প্রয়োগ করা হতে পারে এই ভ্যাকসিন। তবে সংখ্যাটা ২০ ও করা হতে পারে। সব মিলিয়ে এই দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল হবে ১০০ জনের উপর।

প্রসঙ্গত সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ডিসেম্বরের শেষ দিকে তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু হওয়ার কথা জানা গিয়েছে। সেক্ষেত্রে ১৪ জনের শরীরে প্রয়োগ করা হবে এই ভ্যাকসিন। আরও দুটি বেসরকারি হাসপাতালে কর্মকাণ্ডে যুক্ত হতে পারে। পিয়ারলেস সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল ও মেডিকা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল ।তবে সবটাই নির্ভর করছে স্বাস্থ্য দপ্তরের অনুমতির উপর।

Comments
Loading...