ইউরোপের ব্যবসায় খরচ কমানোর উদ্যোগ টাটা স্টিলের, ৩ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের আশঙ্কা

বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দার ছাপ স্পষ্ট। অটোমোবাইল থেকে শুরু করে এফএমসিজি কিংবা তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা, সকলেই নাগাড়ে কর্মী ছাঁটাই শুরু করেছে। এবার ইউরোপে ব্যবসায় খরচ কমাচ্ছে টাটা স্টিল। সেই সঙ্গে কর্মী ছাঁটাইয়ের রাস্তা নিল তারাও।
গত সোমবার টাটা স্টিলের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, ইউরোপ মহাদেশে তাদের ব্যবসার ক্ষেত্রে বেশ কিছু কাঠামোগত পরিবর্তন আনা হচ্ছে। যেমন বিপুল পরিমাণে খরচ কমানো হচ্ছে, তেমনি লোকসানের কারণে কর্মী ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। তবে ঠিক কত সংখ্যক কর্মীর কাজ যাচ্ছে তা নিয়ে বিশদে কিছু জানায়নি টাটা স্টিল কর্তৃপক্ষ। একটি সূত্রের খবর, এই দফায় ৩ হাজার কর্মীর কাজ যেতে পারে।
সোমবার টাটা স্টিলের ইউরোপের সিইও হেনরিক অ্যাডাম এক বিবৃতিতে জানান, সংস্থা বেশ কিছু চ্যালেঞ্জের সামনে পড়েছে। সেই কারণে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। যেমন, যোগান কমানো, উৎপাদনে উন্নত মানের প্রযুক্তির ব্যবহার, ইস্পাতের গুণমান বৃদ্ধি, গবেষণার উপর জোর দেওয়া এবং কর্মী কমিয়ে খরচ বাঁচানো। এই ঘোষণার পর টাটা স্টিলের ইউরোপীয় ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত তিন হাজার কর্মীর চাকরিতে কোপ পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। সংস্থার অফিসের কাজে যুক্ত প্রায় দুই তৃতীয়াংশ কর্মী কমিয়ে আনার কথা ভেবেছে টাটা স্টিল। সংস্থার ইউরোপীয় ব্যবসায় এখন কাজ করেন প্রায় ২০ হাজার কর্মী। অ্যাডাম জানান, প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে যুদ্ধ করে টিকে থাকতেই এই সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। তবে ইউরোপের কোনও সংস্থাকে গুটিয়ে নেওয়া হবে না। ইস্পাতের চাহিদা বহুদিন ধরেই কমে গিয়েছে। কিন্তু বাড়ছে যোগান। ফলে উৎপাদিত পণ্যের দর নেমে যাচ্ছে। অভিযোগ, এর জন্য দায়ী প্রধানত চিনা সংস্থাগুলির অতিরিক্ত সরবরাহ। টাটাদের যুক্তি, সারা পৃথিবীর ওই বাড়তি উৎপাদন প্রবেশ করছে ইউরোপীয় বাজারে। এর ফলে সামগ্রিকভাবে পণ্যের বাজার চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ছে।

Comments
Loading...