যশবন্ত সিনহা: গভীর রাতে মোদী-শাহ-নাড্ডা বৈঠক, হার নিশ্চিত জেনে EVM বদলের চক্রান্ত!

অসমে EVM কাণ্ডের আঁচ এবার বাংলায়।
দিল্লিতে গভীর রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা গোপন বৈঠকে বসেন। আলোচনায় উঠে আসে বাংলার নির্বাচনে প্রথম দু’দফায় বিজেপির শোচনীয় পরাজয় হতে চলেছে। শনিবার সাংবাদিক বৈঠক করে চাঞ্চল্যকর দাবি, তৃণমূলের সহ সভাপতি তথা বাজপেয়ী জমানার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশবন্ত সিনহা। পাশাপাশি তিনি অসমে বিজেপি প্রার্থীর গাড়িতে ইভিএম মেলার ঘটনা উল্লেখ্য করে অভিযোগ করেন, বিজেপি নেতারা যেখানে যেখানে হারতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন, সেখানে অসমের কায়দায় ইভিএম মেশিন বদল করার চক্রান্ত করা হচ্ছে।
বাজপেয়ী জমানার অর্থ ও বিদেশমন্ত্রীর দাবি, অসমের ঘটনা কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, সারাদেশ জুড়ে বিজেপি এই চক্রান্ত করছে।
সেই সঙ্গে এদিন ফের একবার যশবন্ত সিনহা বলেন, বাংলা জিততে বিজেপি নেতৃত্ব মিথ্যে প্রচারের আশ্রয় নেবে।

১ এপ্রিল নন্দীগ্রামের ভোটের দিন, প্রধানমন্ত্রী জনসভা থেকে বলেছিলেন, মমতা ব্যানার্জি নন্দীগ্রামে হারছেন, তাই অন্য নিরাপদ কেন্দ্র খুঁজছেন।
শনিবার ফের একবার মোদীর ওই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে যশবন্ত সিনহা বলেন, হার নিশ্চিত জেনে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়ানোর জন্য বিজেপি নেতারা মাইন্ড গেমস খেলছেন।

[আরও পড়ুন- ভাইরাল ভিডিওয় পা নাচাচ্ছেন মমতা! ভাইরাল ভিডিও নিয়ে চাপানউতোর]

তিনি দাবি করেন, গভীর রাতে মোদী, শাহ, নাড্ডার বৈঠকে স্থির হয়েছে বাংলায় মিথ্যে প্রচারের মাত্রা আরও বাড়ানো হবে। জগৎ প্রকাশ নাড্ডা বলেছেন, মমতা ব্যানার্জি অন্য কোনও কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়ছেন এই খবরকে আরও গ্রহণযোগ্য করে তুলতে হবে। যাতে প্রচার করা যায় যে তৃণমূল নেত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে তিনি অন্য কোনও নিরাপদ কেন্দ্র থেকে পুনরায় প্রার্থী হবেন।

সাংবাদিক বৈঠক থেকে যশবন্ত সিনহা রাজ্যের মানুষের কাছে আবেদন করেন, তাঁরা যেন বিজেপির মিথ্যে প্রচারের ফাঁদে পা না দেন।
যশবন্ত সিনহা ছাড়াও সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা। দু’জনেই এদিন তৃণমূল কর্মীদের ইভিএম পাহারায় কড়া নজরদারির রাখার কথা বলেন।

Comments
Loading...