কেরলে সিপিএম কর্মী খুনে যাবজ্জীবন ৭ বিজেপি-আরএসএস কর্মীর, দশক পেরিয়ে রায় আদালতের

কেরলে সিপিএম কর্মী খুনে ৭ বিজেপি-আরএসএস কর্মীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনালো আদালত। ২০০৭ সালের ৬ই নভেম্বর কান্নুরে পি পবিত্রণ নামে এক সিপিএম কর্মীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে প্রকাশ্যে খুন করার অভিযোগ ওঠে কয়েকজন বিজেপি ও আরএসএস কর্মীর বিরুদ্ধে। বুধবার এই মামলার শুনানিতে থালাসেরি অতিরিক্ত জেলা দায়রা আদালত অভিযুক্ত সাত বিজেপি ও আরএসএস কর্মীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেককে এক লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।
২০০৭ সালের ৬ই নভেম্বর কান্নুর জেলার পুন্নিয়াম এলাকায় পেশায় শ্রমিক ও সক্রিয় সিপিএম কর্মী হিসেবে পরিচিত পি পবিত্রণকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করা হয়। সূত্রের খবর, ওই দিন সকালে ছেলেকে নিয়ে দুধ কিনতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন পি পবিত্রণ। সকাল ৫টা ৪৫ মিনিট নাগাদ ওই সিপিএম কর্মীকে ধাওয়া করে কয়েকজন। প্রাণ বাঁচাতে একটি বাড়িতে ঢুকে পড়লেও শেষ পর্যন্ত ছেলের সামনেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় পি পবিত্রণকে। মৃত্যু হয় সিপিএম কর্মী পি পবিত্রণের।
দীর্ঘ ১২ বছর বিচার প্রক্রিয়া চলার পরে মৃত সিপিএম কর্মীর ছেলে বিপিন ও ২৩ জন সাক্ষীর বয়ানের ওপর ভিত্তি করে ৭ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা ঘোষণা করে আদালত। দোষীরা প্রত্যেকেই বিজেপি-আরএস কর্মী বলে জানা গিয়েছে।

Comments
Loading...