দিল্লিতে মদের দামের ওপর ৭০ শতাংশ করোনা কর চাপালো কেজরিওয়াল সরকার

তৃতীয় দফার লকডাউনে সোমবার থেকে সরকারি নির্দেশে খুলেছে মদের দোকান। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে গোটা দেশে চলছে মদ বিক্রি। আর কলকাতা হোক বা রাজধানী দিল্লি, মদের দোকানের দিকে তাকালেই চোখে পড়ছে মানুষের লম্বা লাইন। যা সামাল দিতে রীতিমত হিমশিম খেতে হয়েছে পুলিসকে। আর এর মাঝেই মদ বিক্রি থেকে রাজস্ব বাড়ানোর জন্য মদের দামের উপর ৭০ শতাংশ ‘স্পেশাল করোনা ফি’ বসাল দিল্লি সরকার।
করোনাভাইরাসের প্রকোপের জেরে একদিকে যেমন দেশের অর্থনীতি কার্যত মুখ থুবড়ে পড়েছে, তেমনই কমেছে রাজ্য সরকারগুলির রাজস্ব আয়ের পরিমাণ। উপরন্তু এই করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় খরচ হচ্ছে প্রচুর অর্থ। তাই এবার রাজস্ব বাড়ানোর এই নয়া পরিকল্পনা দিল্লি সরকারের। মদের বোতলের এমআরপির উপর ৭০ শতাংশ স্পেশাল করোনা ফি লাগু করা হয়েছে। মঙ্গলবার থেকেই এই নতুন দামে মদ বিক্রি করা হচ্ছে রাজধানী দিল্লিতে।
সোমবার রাতে জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে দিল্লি সরকারের অর্থ দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়, সরকারি লাইসেন্সপ্রাপ্ত মদের দোকান থেকে বিক্রি হওয়া সমস্ত রকমের মদের দামের উপর ৭০ শতাংশ বর্ধিত হার লাগু করা হবে। যার অর্থ, একটি মদের বোতলের দাম যদি ১০০০ টাকা হয়, তাহলে গ্রাহককে সেই মদের জন্য দিতে হবে ১৭০০ টাকা।

মদ বিক্রির জন্য দিল্লি সরকার কনটেইনমেন্ট জোনের বাইরে রাজ্য পরিচালিত ১৫০ টি মদের দোকান খুলেছে। কিন্তু দেখা গেছে শহরের বেশ কিছু জায়গায় সামজিক দূরত্বের নিয়ম মানছেন না সাধারণ মানুষ। এই পরিপ্রেক্ষিতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, যে সমস্ত এলাকায় লকডাউন কিছুটা শিথিল করা হয়েছে, সেই সব এলাকার মানুষ যদি কোনও রকমের সামাজিক দূরত্বের নিয়মভঙ্গ করেন, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে সেই সব এলাকা থেকে সব রকমের শিথিলতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে।

Comments
Loading...