ব্রিগেডের আগে ক্ষমা চেয়ে বাড়ি বাড়ি আমন্ত্রণ পত্র পাঠাচ্ছে সিপিএম

২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশ। সমাবেশে লোক টানতে বাড়ি বাড়ি বিলি করা হচ্ছে আমন্ত্রণপত্র। রীতিমত পোষ্ট কার্ড বিলি করে ব্রিগেড সমাবেশে যাওয়ার আবেদন করছে বামেরা। পূর্ব মেদিনীপুরে সিপিএমের খেজুরি ও হেঁড়িয়া অঞ্চল কমিটি এই উদ্যোগ নিয়েছে। সিপিএম সূত্রে খবর, ইতিমধ্যে ১০ হাজার কার্ড বিলি করা হয়েছে।

আমন্ত্রণপত্রে বলা হয়েছে, বিগত ১২ বছর আমরা এবং আপনারা বিপদের মধ্যে ছিলাম। খুন, সন্ত্রাস, লুঠ-পাট, স্বজন হারানোর দুঃখ কষ্টের দিনগুলিতে আপনার কাছে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে প্রতি পদে পদে বাধার সম্মুখীন হয়েছি আমরা। ক্ষমা চাইছি।

এলাকার বাম নেতৃত্ব সাধারণ মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিলি করছেন কার্ড। এলাকার বাম নেতাদের দাবি, এই উদ্যোগে সাড়া মিলছে ভালোই। তৃণমূল-বিজেপির ঘৃন্য রাজনীতির বিরুদ্ধে মানুষ প্রকাশ্যে মুখ খুলছেন বলেও দাবি করেন বাম নেতারা। কার্ডে লেখা আছে, আগামী ২৮ শে ফেব্রুয়ারি বেলা ১ টায় ব্রিগেড সমাবেশে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হল।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি বাম-কংগ্রেসের যৌথ ব্রিগেড। সিপিএম নেতারা বলছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের সাত বছর এবং রাজ্য সরকারের দশ বছরের অপশাসনের বিরুদ্ধে সমস্তস্তরের বঞ্চিত, অত্যাচারিত, নিপীড়িত মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার ব্রিগেড। ব্রিগেডে সভা সফল করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে বামেরা। এবার সেই তালিকায় যোগ হল বাড়ি বাড়ি আমন্ত্রনপত্র বিলি।

ব্রিগেডে যাওয়ার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন খেজুরি ও হেঁড়িয়া এলাকার মানুষ। এখনও পর্যন্ত ব্রিগেডের যাবেন বলে প্রায় ২ হাজার মানুষ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এলাকাবাসীদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওইদিন যানজট এড়ানোর জন্য আগের দিন কেউ কেউ গাড়ি নিয়ে চলে যাবেন ব্রিগেডে। আবার কারও মুখে শোনা গেল পুরো পরিবারকে নিয়েই যাবেন ব্রিগেডে।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রচারে অভিনবত্ব আনতে চাইছে সব রাজনৈতিক দল। পিছিয়ে নেই বামেরাও। সম্প্রতি ‘টুম্পা তোকে নিয়ে ব্রিগেড যাব’ গান ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। জানা গিয়েছে, একটি গানের সিডিও প্রকাশ করেছে সিপিএমের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কমিটি। ওই সিডি ইতিমধ্যেই এলাকায় বিভিন্ন বাড়িতে পৌঁছে গেছে। ব্রিগেডের আগে গ্রামে, গঞ্জে, হাটে, বাজারে এইসব সিডির গান প্রচারে অন্য মাত্রা আনবে বলে মনে করছে আলিমুদ্দিন স্ট্রিট।

Comments
Loading...