আলাপনের বদলি মোদী সরকারের ইচ্ছাকৃত ষড়যন্ত্র! প্রতিশোধ তুলছে, এবার আক্রমণে জহর সরকার

আলাপন ব্যানার্জিকে দিল্লিতে ডেকে আনা হচ্ছে! মোদী-শাহ কি পাগল হয়ে গেছেন?

৩১ মে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিবকে দিল্লির নর্থ ব্লকে রিপোর্ট করতে বলা হল কেন্দ্রের তরফে। ২৮ মে রাতে মুখ্যসচিবকে ছেড়ে দিতে রাজ্যকে চিঠি পাঠায় কেন্দ্র। কিন্তু হঠাৎ করে কেন এই সিদ্ধান্ত?

করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আগেই মুখ্যসচিবের জন্য তিন মাস এক্সটেনশন চেয়েছিলেন। তা মঞ্জুর করে মোদী সরকার। তারপরও আলাপন ব্যানার্জিকে দিল্লিতে ডেকে আনা হচ্ছে! মোদী-শাহ কি পাগল হয়ে গেছেন? শুক্রবার রাতে নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে একের পর এক সওয়াল করলেন প্রসার ভারতীর প্রাক্তন সিইও তথা অবসরপ্রাপ্ত আইএএস অফিসার জহর সরকার।

শুক্রবার ঘূর্ণিঝড় যশে ওড়িশা এবং বাংলার ক্ষয়ক্ষতি আকাশ পথে পর্যালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রথমে ওড়িশা এবং পরে পূর্ব মেদিনীপুরের কলাইকুন্ডায় রিভিউ মিটিং করেন মোদী। বৈঠক সেরে ফিরে যান দিল্লি।

রাত গড়াতেই কেন্দ্রের তরফে নবান্নকে চিঠি, ক্যাবিনেট কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দ্রুত রাজ্য সরকার যেন মুখ্যসচিবকে ছেড়ে দেয়। সোমবার সকাল ১০ টায় আলাপন ব্যানার্জিকে নর্থ ব্লকে রিপোর্ট করতে হবে।

গোটা বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই তরজা শুরু হয়েছে। এবার মুখ খুললেন জহর সরকারও। শুক্রবার মোদী-শাহকে আক্রমণ করে একটি ট্যুইট করেন তিনি। ট্যুইটে লিখছেন, মোদী-শাহ কি পাগল হয়ে গেছেন? পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব পদে আলাপন ব্যানার্জির অবসর নেওয়ার মাত্র ১ দিন বাকি! এই সময় কেন্দ্র তাঁকে দিল্লিতে বদলি করছে! মুখ্যমন্ত্রী তিন মাস অতিরিক্ত সময় চেয়েছিলেন। তারপরও এমন সিদ্ধান্ত! এরপরই তিনি লিখেছেন, ঘূর্ণিঝড়ের ত্রাণ, করোনা মোকাবিলা এবং বাংলায় ৪৮ শতাংশ মানুষের বিজেপির বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার কারণে এটি আসলে কেন্দ্রীয় সরকারের ইচ্ছাকৃত ষড়যন্ত্র।

শুক্রবার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় তৃণমূল। মুখ্যসচিব আলাপন ব্যানার্জির বদলির নির্দেশকে কেন্দ্র এবং বিজেপির প্রতিহিংসার পরিচয় বলে উল্লেখ করেছেন তৃণমূলের মুখপাত্র মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। এবার রাজনীতির গণ্ডি পেরিয়ে জহর সরকারের মতো প্রাক্তন বাঙালি আমলাও প্রশ্ন তুললেন মোদী সরকারের মনোভাব নিয়ে।

Comments
Loading...