বুধবার আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষ্যে বাংলার যুব সম্প্রদায়ের জন্য নয়া প্রকল্প চালুর ঘোষণা করলেন মমতা ব্যানার্জি। ‘কর্মসাথী প্রকল্পে’র আওতায় ১ লক্ষ বেকার যুবক-যুবতী স্বল্প মূল্যে ঋণ ও ভর্তুকি পাবেন। এই অর্থে তাঁরা নতুন ব্যবসা শুরু বা ব্যবসায়ে মূলধন বিনিয়োগ করতে পারবেন বলে মনে করছে রাজ্য সরকার।

বুধবার ট্যুইটেও এই প্রকল্প শুরুর কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ট্যুইটে মমতা লেখেন, ‘আজ আন্তর্জাতিক যুব দিবস। বাংলার সরকার যুব কল্যাণে অঙ্গীকারবদ্ধ। ‘কর্মসাথী’ নামে নয়া প্রকল্পে বাংলার ১ লক্ষ বেকার যুবক-যুবতী স্বনির্ভর হতে সহজ শর্তে ঋণ পাবেন, উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী। আরও লেখেন, ভারতে বেকারত্বের হার ২৪ শতাংশে পৌঁছেছে, যা সর্বকালীন রেকর্ড। সেখানে পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্বের হার ৪০ শতাংশ কমে গিয়েছে। বাংলার যুব সম্প্রদায় অতীতে ভারতের নেতৃত্ব দিয়েছে, ভবিষ্যতেও দেবে। আমরা আমাদের যুব সম্প্রদায়ের জন্য গর্বিত। তাঁরাই ভবিষ্যৎ। নতুন প্রজন্ম জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। যুবকরা মেধাবী, দক্ষ ও পরিশ্রমী। তাঁদের আজকের স্বপ্ন ভবিষ্যতে বাস্তব হবে, ওই ট্যুইটে লেখেন মমতা।

২০২০ সালের রাজ্য বাজেটে ‘কর্মসাথী’ প্রকল্পের প্রস্তাব ঘোষণা করেছিলেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। এই প্রকল্পে বছরে ১ লাখ কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে বলে আশাবাদী রাজ্য সরকার৷ কর্মসাথী প্রকল্পের জন্য ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন অর্থমন্ত্রী।

ঋণ পেতে যুবক-যুবতীদের বিডিও অফিসে আবেদন করতে হবে৷ নবান্ন সূত্রে খবর, একবার নাম নথিভুক্ত হলেই অ্যাপের মাধ্যমে টাকা পেয়ে যাবেন আবেদনকারী।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Mamata Pujo Meet
Farm Bill Protest