৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন, বিয়ে বা সামাজিক অনুষ্ঠানে সর্বাধিক ২৫ জনের প্রবেশাধিকার, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

রাজ্যে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউনের মেয়াদ, নবান্ন থেকে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির।

চতুর্থ দফার লকডাউন শেষে সারা দেশে ৩০ জুন পর্যন্ত পঞ্চম দফার লকডাউন ঘোষণা করে কেন্দ্র। যদিও রাজ্য সরকারের তরফে তা ছিল ১৫ জুন পর্যন্ত। বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছিল। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল জনজীবন। কিন্তু আনলক- ১ এর শুরু থেকেই প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমিতের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে সোমবার ফের লকডাউনের মেয়াদবৃদ্ধির কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। জানালেন, ৩০ জুন অবধি রাজ্যে জারি থাকবে লকডাউন। তিনি জানান, লক্ষ লক্ষ মানুষের যাতায়াতের ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। আগামীতে আরও বেশি হারে সংক্রমণের আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। তাই প্রত্যেক মানুষকে সচেতন হয়ে নিয়ম মেনে চলতে আবেদন জানান মমতা। তবে কিছু ক্ষেত্রে ছাড়ও মিলছে। মমতা ব্যানার্জি বলেন, ছোঁয়াচে কোনও রোগে সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা সংগঠিত কোনও গোষ্ঠীর। ঠিক যেমন পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফেরার স্বার্থে অনেকে একসঙ্গে মিলে ছিলেন। ফলে সেখানে একজনেরও সংক্রমণ হলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা। ঠিক এই কারণেই পুলিশ কিংবা স্বাস্থ্যকর্মীদেরও সংক্রমিত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে। মমতার কথায়, এটাই হয়ে থাকে।

এদিন ধর্মীয় সভা, বিয়ে বাড়ি অথবা কোনও অনুষ্ঠানে ১০ জনের পরিবর্তে ২৫ জন পর্যন্ত জমায়েত করা যাবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তাছাড়া সাইকেলে যে এলাকায় যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি ছিল, সেক্ষেত্রেও ছাড় মিলছে বলে ঘোষণা করেন।

সোমবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা আরও জানিয়েছেন, রাজ্যে সবমিলিয়ে ১১ লক্ষের মতো পরিযায়ী শ্রমিকের ঘরে ফিরছেন। তাঁর কথায়, বাংলার সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিককে আমরা ফিরিয়ে আনছি। তারপরই তিনি জানান, ভিন রাজ্যের শ্রমিকরা, যাঁরা বাংলায় এসে কাজ করছেন তাঁরা ফিরে যেতে চাননি। এটাই বাংলার গর্ব, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। বিশ্ব ব্যাঙ্কের থেকে পাওয়া অনুদানের মধ্যে পরিকাঠামো খাতে ১০৫০ কোটি এবং সামাজিক সুরক্ষা স্কিমে ৮৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হচ্ছে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Comments
Loading...