হাওড়ায় প্রস্তাবিত শিল্প পার্কে ২ লক্ষ কর্মসংস্থান, ১৩ হাজার কোটি বিনিয়োগ, নবান্ন থেকে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

হাওড়ার ১,৬৩৩ একর জমিতে ১৩ হাজার কোটি টাকা খরচ করে তৈরি হবে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক, কর্মসংস্থান হবে ২ লক্ষ মানুষের। ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
শুক্রবার নবান্ন সভাগৃহ থেকে শ্রমনিবিড় শিল্প পরিকাঠামো ও কর্মসংস্থান নিয়ে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখান থেকে হাওড়ার ১ হাজার ৬৩৩ একর জমির ওপর বিভিন্ন শিল্প পার্ক তৈরির কথা ঘোষণা করেন তিনি। মমতা জানান, ১৩ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হচ্ছে এই ইন্ডাস্ট্রি পার্কগুলিতে, যেখানে ২ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হবে।
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কিছুদিন আগেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার বানতলায় লেদার শিল্প হাবের উদ্বোধন করেছেন। সেই কাজ শেষ হলে প্রায় ৫ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হবে। সেই সঙ্গে হাওড়ায় আরও ২ লক্ষ মানুষের কাজ তৈরি হবে বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী।
পাশাপাশি বিরোধীদের কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রীর বার্তা, হিংসার নয়, বরং কাজের বদলে কাজের প্রতিযোগিতায় নামুন। সেই সঙ্গে কারখানায় ট্রেড ইউনিয়নের ভূমিকা সম্পর্কে মমতার বক্তব্য, অনেক সময় কাজের নামে অকাজ করে ট্রেড ইউনিয়ানগুলো। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ন্যায্য দাবিতে অবশ্যই লড়াই করা উচিত, কিন্তু কারখানার গেট বন্ধ করে প্রতিবাদ করলে আখেরে সবারই ক্ষতি। সেই সঙ্গে এদিন বিরোধী এবং সংবাদমাধ্যমের একাংশের ভূমিকারও সমালোচনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যান্য রাজ্যে ভালো কাজ হলে সংবাদমাধ্যম থেকে বিরোধীরা সরকারকে সমর্থন জানায়। কিন্তু এ রাজ্যে তা হয় না, আক্ষেপ মুখ্যমন্ত্রীর। তাঁর কথায়, যে বাংলা থেকে আগে শিল্পপতিরা মুখ ফিরিয়ে নিতেন, সেখানেই এখন তাঁরা গর্বের সঙ্গে কাজ করছেন। সেই কারণেই মাইক্রোসফট, উইপ্রোর মতো বহুজাতিক সংস্থা এ রাজ্যে বিনিয়োগ করছে। এরপরেই মোদী সরকারকে কটাক্ষ করেন মমতা। তিনি বলেন, বর্তমানে অটোমোবাইল শিল্প বিপন্ন, একের পর এক কারখানা বন্ধ হওয়ার মুখে, চলছে বিপুল পরিমাণ ছাঁটাই। তাই এই মুহূর্তে অর্থনৈতিক সংস্কার সবচেয়ে বেশি জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি। মমতা বলেন, অর্থনৈতিক স্বাধীনতা না এলে কিছুই হবে না।

Comments
Loading...