মঙ্গলবার উত্তর কলকাতার বিবেকানন্দ রোড থেকে বেলেঘাটা গান্ধী পর্যন্ত এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে ফের মিছিল করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এদিন মমতার ঘোষণা, এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আরও তীব্র করতে হবে আন্দোলন।
তাঁর অভিযোগ, এনআরসি নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। মোদীর পোশাক দেখে আন্দোলনকারীদের চেনা যায় মন্তব্যের কটাক্ষ করে মমতা বলেন, মুখ দেখে, ভাষা শুনেও চেনা যায়, কারা বিভেদ ছড়াচ্ছেন।
নাম না করে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে একহাত নেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, আমাদের রাজ্যে একজন বেকা এবং ন্যাকা লোক আছেন। তিনি রোজ বলেন, বাংলায় আইন-শৃঙ্খলা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। মমতার কথায়, ‘ব্যাঁকাদের সম্মান করি, কিন্তু ব্যাঁকা এবং ন্যাকাকে পছন্দ করি না’। মমতার পরামর্শ, বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশ, কর্ণাটকে নজর ঘোরান রাজ্যপাল ও বিজেপি নেতারা। তাহলেই তফাৎ চোখে পড়বে। তৃণমূল নেত্রী জানান, উত্তরপ্রদেশের মতো এ রাজ্যে আন্দোলনকারীর উপর গুলি ছুড়তে হয়নি। কোনও মানুষও নিহত হননি। বরং তাঁর দলের প্রতিনিধিরা লখনউয়ে নিহত পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তাঁদের বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু এ রাজ্যে বিজেপির শীর্ষ নেতারা নির্বিঘ্নে মিটিং করেন।
সোমবারই কলকাতায় এসে বিজেপি কার্যনিবাহী সভাপতি জে পি নাড্ডা এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন নিয়ে তীব্র আক্রমণ করেছিলেন মমতাকে। আর মঙ্গলবার মমতার কটাক্ষ, চাইলে এক সেকেন্ডে এ তাঁদের মিটিং আটকাতে পারতেন। কিন্তু এ রাজ্যে আইন-শৃঙ্খলা আছে বলেই বিজেপি নেতারা গাড়ি করে নির্বিঘ্নে সভা করে যান। পাশাপাশি, মতুয়াদের মমতা রাজনীতি করছেন বলে নাড্ডা যে অভিযোগ করেন, তার প্রতিক্রিয়ায় মমতা বলেন, তৃণমূল সরকারের আমলেই মতুয়া সম্প্রদায়ের জন্য কাজ হয়েছে। কিন্তু তাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার নামে ফের লাইনে দাঁড় করাতে চেয়ে বিভাজনের রাজনীতি করছে বিজেপি।
এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন নিয়ে আন্দোলনের আবহে ঝাড়খণ্ডে বিজেপির হারকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, যোগ্য জবাব দিয়েছেন ঝাড়খণ্ডের মানুষ। এর আগে মহারাষ্ট্রেও জবাব পেয়েছে বিজেপি।  নেত্রীর দাবি, বাংলায় কোনওভাবেই এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন হবে না। তাঁর দাবি, বাংলায় কোনও ডিটেনশন ক্যাম্পও তৈরি হয়নি এবং ভবিষ্যতেও হবে না।
আগামী ৩০ ডিসেম্বর শিলিগুড়িতে নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি-র বিরুদ্ধে মিছিল করবেন বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

11 New Corona Positive in Bengal