Harvard এ চাকরি দেওয়ার নামে NDTV’র প্রাক্তনী নিধি রাজদানের সঙ্গে ভয়াবহ প্রতারণা!

সঙ্গে সঙ্গে তথ্য প্রমাণ সহ পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন, অভিযুক্তরা এখনও ধরা পড়েনি

সাংবাদিক যখন নিজেই সংবাদ! 

চাকরির নিয়োগপত্র পেলেন। এতদিন মনে মনে যা চেয়েছিলেন, অবশেষে স্বপ্ন পূরণ। খুশির আবহে পুরনো অফিস থেকে ইস্তফা। দু’দশকের পুরনো সহকর্মীদের ছেড়ে সাত সমুদ্র পেরিয়ে চলে যেতে হবে ভেবে চোখে জলও এসেছিল হয়ত। এগিয়ে চলাকেই জীবনের মন্ত্র করে যখন নয়া চাকরিতে যোগ দিতে যাবেন, জানতে পারলেন এমন কোনও নিয়োগ হওয়ার কথাই নেই। গোটাটাই ভুয়ো! 

উপরের ঘটনা আপনার সঙ্গে হয়নি নিশ্চয়ই। কিন্তু হলে কী অবস্থার মধ্যে পড়তে হতো তা ভেবে দুশ্চিন্তায় পড়তে বাধ্য। না, আমি আপনি না বরং দেশের প্রথম সারির এক সাংবাদিক তথা অ্যাঙ্করকে এমন ভয়ঙ্কর ধোঁকাবাজির মুখে পড়তে হয়েছে। তিনি এনডিটিভির প্রাক্তন কর্মী নিধি রাজদান। 

সম্প্রতি হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির জার্নালিজম শাখায় অ্যাসোসিয়েট প্রোফেসারের চাকরি পেয়ে এনডিটিভি থেকে ইস্তফা দেন নিধি রাজদান। কথা ছিল জানুয়ারির মাঝামাঝি কোর্স শুরু হবে। নিধিকে সেই সময় এসে যোগ দিতে হবে। নতুন বছরে নিধি যখন হার্ভার্ডে যোগাযোগ করেন, জানতে পারেন একটি ভয়াবহ ঠগবাজির শিকার হয়েছেন তিনি। তাঁকে দেওয়া হয়েছে ভুয়ো নিয়োগপত্র কারণ হার্ভার্ডে জার্নালিজম পড়ানোই হয় না। মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ে তারকা অ্যাঙ্করের।

১৫ জানুয়ারি বিকেল ৪ টে নাগাদ নিধি রাজদান একটি ট্যুইট করেন। লেখেন, আমি অত্যন্ত গুরুতর একটি জালিয়াতির শিকার হয়েছি। সেই ট্যুইটের সঙ্গেই নিধি অ্যাটাচ করেছেন নিজের বক্তব্য। যেখানে ছত্রে ছত্রে জালিয়াতির বিবরণ দিয়েছেন তিনি। এবং শেষে জানিয়েছেন, এই ইস্যুতে এর পরে আর কোনও কথা বলব না বলে ঠিক করেছি। 

একটানা ২১ বছর এনডিটিভিতে কাজ করার পর গত বছর জুন মাসে ইস্তফা দেন। তাঁর হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে জার্নালিজমের অ্যাসোসিয়েট প্রোফেসার হিসেবে যোগ দেওয়ার কথা। প্রথমে নিধিকে বলা হয়েছিল সেপ্টেম্বরে জয়েনিং। কিন্তু অতিমারির কারণে তা পিছিয়ে ২০২১ সালের জানুয়ারি করা হয়। অথচ জানুয়ারি চলে এলেও কেন যোগাযোগ করা হচ্ছে না? নিধি রাজদান এবার সরাসরি যোগাযোগ করেন হার্ভার্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। জানতে পারেন এক ভয়ানক প্রতারণার শিকার হয়েছেন তিনি। এমনকি তাঁর সমস্ত ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট এবং ডিভাইসও হ্যাক করা হয়েছিল। তার সাহায্যেই প্রতারণা করা হয় নিধি রাজদানের সঙ্গে। 

আর দেরি করেননি নিধি। সঙ্গে সঙ্গে তথ্য প্রমাণ সহ পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তরা এখনও ধরা পড়েনি। 

যে স্বপ্নের কাজের আশায় ২১ বছরের চাকরি এক লহমায় ছেড়ে দিতে পেরেছেন, নতুন কাজে যোগ দিতে গিয়ে শুনলেন আপনি আসলে প্রতারণার শিকার! 

নিধি রাজদানের মত সেলেব্রিটি অ্যাঙ্করই যদি এমন প্রতারণার ফাঁদে পা দেন, তাহলে সাধারণ মানুষের কী হবে? 

নতুন বছরে নতুন করে শুরু করছেন নিধি। জানিয়েছেন আপাতত দূরে কোথাও কটাদিন নিজের মত করে কাটিয়ে ফিরবেন। এনডিটিভিতে ফিরবেন? জানা যায়নি, তবে খবরের জগতে থাকবেন সেটা নিশ্চিত।

Comments
Loading...