মোদীর প্রাণনাশের আশঙ্কা অত্যন্ত বেশি, তাঁর দেখা পেতে মন্ত্রীদেরও লাগবে এসপিজি’র অনুমতি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রাণনাশের আশঙ্কা এখন সব থেকে বেশি। মঙ্গলবার এই কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। এই মর্মে প্রতিটি রাজ্যকে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ‘সুরক্ষা বলয়’ বা ‘সিকিউরিটি প্রটোকল’ নির্দিষ্ট করার  কথা বলা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সুনির্দিষ্ট ছাড়পত্র ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাউকেই দেখা করতে দেওয়া হবে না। এমনকী মন্ত্রী বা আমলাদেরও এসপিজির থেকে ছাড়পত্র নিয়ে সাক্ষাৎ করতে হবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর, দেশের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলি ইতিমধ্যেই জানিয়েছে, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন কিংবা মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, রাজস্থানের মতো রাজ্যগুলির আসন্ন বিধানসভা ভোটে প্রচারের সময় মোদী যেন রোড শো যথাসম্ভব এড়িয়ে চলেন। কারণ রোড শোগুলির রাস্তা আগে থেকেই সুনির্দিষ্ট করা থাকে। এর ফলে নাশকতার আশঙ্কা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সফরের সময় তাঁর নিরাপত্তা বেষ্টনীতে এবার যুক্ত হবে স্থানীয় পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর বাড়তি ফোর্স। এ ছাড়া বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কমান্ডোর সংখ্যাও বাড়ানো হবে। উল্লেখ্য, এর আগেই পুনে পুলিশ দাবি করেছিল, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হত্যার ছক কষেছে মাওবাদীরা।

Comments
Loading...