তৃণমূলে যোগ দিলেন কার্তিক দাস বাউল সহ ৪ বিশিষ্ট, মমতার হাত শক্ত করাই উদ্দেশ্য বলছেন নবাগতরা

এতদিন দলে যোগ দিচ্ছিলেন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। এবার তৃণমূলে যোগ দিলেন সমাজের বিভিন্ন পেশায় সফল এক ঝাঁক মানুষ। তাঁদের কেউই এতদিন প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে না থাকলেও, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে মমতা ব্যানার্জির হাত শক্ত করতে রাজনীতির ময়দানে নামলেন বাউল শিল্পী কার্তিক দাস, লক্ষ্মণ দাস, ডাক্তার বাদল অশ্রু ঘাটা এবং উদ্যোগপতি সন্দীপ ভারতীয়ারা। বুধবার তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি।

এতদিন বিজেপি, কংগ্রেস বা সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানের ঘটনা ঘটছিল। এবার মমতা ব্যানার্জির ডাকে সাড়া দিয়ে তৃণমূলে এলেন এক ঝাঁক বিশিষ্ট মানুষ। তাঁদের মধ্যে যেমন আছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বাউল শিল্পী কার্তিক দাস ও লক্ষ্ণণ দাস। তেমনই আছেন চিকিৎসক বাদল অশ্রু ঘাটা। রানিগঞ্জ চেম্বার অফ কমার্সের সন্দীপ ভারতীয়াও এদিন ঘাসফুল পতাকা তুলে নেন। সমাজের এই বিশিষ্ট জনেদের দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি বলেন, বিজেপির ধর্মাশ্রয়ী ও হিংসাত্মক রাজনীতির বিরুদ্ধে বাংলার চিরন্তন ঐতিহ্যকে মজবুতভাবে তুলে ধরতে মমতা ব্যানার্জির ডাকে সাড়া দিয়ে রাজনীতির ময়দানে পা রাখছেন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। পার্থবাবু বলেন, এই ৪ জন সরাসরি দলনেত্রীর কাছে দলে যোগদানের আবেদন করেছিলেন। মমতা ব্যানার্জি সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে অনুমোদন দিয়েছেন।

২১ জুলাইয়ের ভার্চুয়াল সভা থেকে দলে ফেরার ডাক দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। তারপরই দলে দলে তৃণমূলে যোগদানের যেন হিড়িক পড়ে গিয়েছে। উত্তরের কোচবিহার থেকে দক্ষিণের ক্যানিং, বিজেপি, কংগ্রেস ও সিপিএম ছেড়ে প্রায় প্রতিদিনই নিয়ম করে তৃণমূলে যোগদান অব্যাহত। এর আগে আসানসোলের সমাজসেবী চন্দ্রশেখর কুণ্ডু তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন। এবার রাজনীতির বাইরের এক ঝাঁক লোক এলেন তৃণমূলে। সংস্কৃতি জগতে কার্তিক দাস বাউল ও লক্ষ্ণণ দাস বাউলের নাম বহুশ্রুত। অন্যদিকে রাজ্যের ক্ষুদ্র শিল্প ক্ষেত্রে পরিচিত নাম সন্দীপ ভারতীয়া, চিকিৎসা জগতের বাদল অশ্রু ঘাটাও যথেষ্ট জনপ্রিয়। তৃণমূলে যোগদান করে তাঁদের বক্তব্য, বাংলার চিরন্তন ঐতিহ্য রক্ষায় মমতা ব্যানার্জির হাত শক্ত করতেই তাঁদের তৃণমূলে যোগদান। আগামী দিনে দল তথা বাঙালির স্বার্থরক্ষাই হবে তাঁদের প্রধান কাজ।

Comments
Loading...