ধর্মসংকটে শিশির-দিব্যেন্দু! শুভেন্দু না দল, কোনদিকে অধিকারীরা? প্রথম পরীক্ষা বুধবার

বুধবার অধিকারী গড়ে শক্তি যাচাইয়ে নামছে তৃণমূল। কাঁথিতে সভা করবেন ফিরহাদ হাকিম ও সৌগত রায়। আবার একইদিনে নিজের জেলায় প্রথম রাজনৈতিক কর্মসূচি সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারীর। কী করবেন শুভেন্দুর বাবা ও ভাই, এখন এই প্রশ্ন বড়ো হয়ে উঠেছে। 

১৯৯৮ সালে দল তৈরির পর পূর্ব মেদিনীপুর, বিশেষ করে কাঁথিতে বড়ো সভা করতে দেখা যায়নি তৃণমূলকে। দীর্ঘদিন ধরেই কাঁথি অধিকারীদের হাতে দিয়েই নিশ্চিন্ত ছিলেন তৃণমূল নেত্রী। কিন্তু পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সেই কাঁথিকেই বেছে নিয়েছে রাজ্যের শাসক দল। আগামী বছরের গোড়ায় নন্দীগ্রাম যাবেন মমতা। তার আগে অধিকারীদের বাড়ির সামনে শক্তি যাচাইয়ে নামছে তৃণমূল। সভায় থাকবেন ফিরহাদ হাকিম ও সৌগত রায়। 

আবার বুধবারই নতুন দলের হয়ে প্রথম নিজের জেলায় কর্মসূচিতে অংশ নিতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপির যুব মোর্চার কর্মসূচিতে থাকবেন তিনি। 

এই অবস্থায় প্রশ্ন উঠছে, কী করবেন শিশির-দিব্যেন্দু? 

তৃণমূল সূত্রে খবর সভায় হাজির থাকার জন্য আমন্ত্রণপত্র গিয়েছে তৃণমূলের জেলা সভাপতি শিশির অধিকারীর কাছে। শিশিরবাবু যোগ দেবেন কি সভায়? সূত্রের খবর শারীরিক অসুস্থতার জন্য সভায় হাজির থাকতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন শিশির। দিব্যেন্দু অধিকারী দলের সভায় যোগ দেবেন কি? জানা যায়নি। 

শুভেন্দুর দলবদলের পর কাঁথির অধিকারী বাড়ি কোনদিকে, তা নিয়ে প্রবল জল্পনা। বিগত বেশ কিছুদিন শিশির বা দিব্যেন্দু, কাউকেই তৃণমূলের কোনও প্রকাশ্য কর্মসূচিতে দেখা যায়নি। ৭ তারিখ মেদিনীপুর কলেজ মাঠে মমতার সভাতেও দেখা যায়নি তাঁদের। আবার তৃণমূল ছাড়ার কথাও ঘোষণা করেননি। ধোঁয়াশা কাটাতে বুধবার সভায় ডাকা হয়েছিল শিশিরবাবুকে।

তবে শুধু শিশির-দিব্যেন্দুই নয়, তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব বুঝতে চাইছে পূর্ব মেদিনীপুরে শুভেন্দুর অনুগামীদের মধ্যে কারা তৃণমূলে রয়ে গেলেন আর কারা গেলেন পদ্ম শিবিরে? তাই কাঁথির সভায় কারা আসছেন তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এদিকে একইদিনে গেরুয়া শিবিরের সভায় হাজির থাকবেন শুভেন্দু। সেখানে তাঁর অনুগামীদের উপরও নজর রাখবে তৃণমূল। 

সবমিলিয়ে কাঁথির শান্তিকুঞ্জে কার্যত ধর্মসংকট। শুভেন্দুর পাশে থাকবেন নাকি দল? বুধবার তার প্রথম পরীক্ষা।

Comments
Loading...