বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর বিরুদ্ধে দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে পোস্টার বসিরহাটে

দুর্নীতিতে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতাদের ‘শাস্তি’ দিতে পুলিশি এনকাউন্টারের নিদান দিয়েছিলেন তিনি, এবার সেই বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর বিরুদ্ধেই আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে পোস্টার পড়ল তাঁরই নির্বাচনী কেন্দ্র বসিরহাটে।
মুখ্যমন্ত্রীর কাটমানি ফেরতের নির্দেশের পর থেকে জেলায় জেলায় দুর্নীতিতে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত সাধারণ মানুষের। যদিও বিজেপির নেতৃত্বেই অধিকাংশ বিক্ষোভ ও আন্দোলন সংগঠিত হচ্ছে। কিন্তু ব্যুমেরাং হয়ে এবার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধেই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে পোস্টার পড়ল বসিরহাটে।
পোস্টারে অভিযোগ, লোকসভা ভোটের জন্য ২ কোটি টাকা পেয়েছিলেন বসিরহাট কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সায়ন্তন বসু। কিন্তু সেই টাকা থেকে কানাকড়িও দেওয়া হয়নি বিজেপির বুথ কর্মীদের। পোস্টারে অভিযোগ, ২ কোটি টাকাই বসিরহাটের বিজেপি প্রার্থী সায়ন্তন বসু, বিজেপির বসিরহাট সাংগঠনিক জেলা কমিটির গনেশ ঘোষ, বিজেপি নেতা দুলাল রায় সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছেন। এমনকী ওই টাকার ‘ভাগ’ পেয়েছেন বিজেপির রাজ্য নেতা সুব্রত চট্টোপাধ্যায়ও, অভিযোগ করা হয়েছে ওই পোস্টারে।
বসিরহাটের বিশাল অংশে এই পোস্টার কারা মেরেছেন তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে এখন। পোস্টারের নীচে ‘বিজেপির কর্মীবৃন্দ’ লেখা থাকলেও সায়ন্তন বসুর অভিযোগ, কাটমানি বিক্ষোভের হাত থেকে বাঁচতে তৃণমূলই এই কাজ করেছে। তিনি এ নিয়ে পুলিশে অভিযোগ করবেন বলেও জানিয়েছেন। অন্যদিকে, তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির যে গোষ্ঠী সায়ন্তনের বিরুদ্ধে, তাঁরাই এই ‘সত্য’ প্রকাশ্যে এনেছেন।
প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে কাটমানি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। বসিরহাটের এক জনসভা থেকে তিনি মন্তব্য করেছিলেন, এ রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে উত্তর প্রদেশ মডেলে পুলিশি এনকাউন্টার চালু হবে। আর তাতে কাটমানি সহ দুর্নীতিতে অভিযুক্ত নেতাদের এনকাউন্টারে খতম করার নির্দেশ দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছিলেন সায়ন্তন বসু। সেই বসিরহাট কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধেই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বিজেপির অন্দরে।

Comments are closed.