রাহুল সিনহা: ৪ কেন ৮ জনকেই গুলি করে মারা উচিত ছিল বাহিনীর!

রাহুল সিনহাঃ বাহিনীর উচিত ছিল আটজনকেই গুলি করে মারা। কেন তাঁরা এ কাজ করলেন না, তার জন্য শোকজ করা উচিত। 

রবিবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বরাহনগরে প্রচারে গিয়ে শীতলকুচি নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন। আর তার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই, কোচবিহারের ঘটনা নিয়ে মন্তব্য করে দিলীপ ঘোষকেও ছাড়িয়ে গেলেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথা এবার হাবড়ার প্রার্থী রাহুল সিনহা।

সোমবার শীতলকুচি কাণ্ডে হাবড়ার বিজেপি প্রার্থীর মন্তব্য, চারজন নয় আটজনকে গুলি করে মারা উচিত ছিল! পাশাপাশি মমতা ব্যানার্জিকে তীব্র আক্রমণ করে তিনি বলেন, ভোটের লাইনে দাঁড়ানো একটি নিরীহ ছেলেকে যে গুন্ডারা গুলি করে মেরেছে তাঁদের নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। বাহিনীকে রাহুল সিনহার সার্টিফিকেট, কেন্দ্রীয় বাহিনী যা করেছে ঠিক করেছে। সেই সঙ্গে তাঁর বিতর্কিত মন্তব্য, বাহিনীর উচিত ছিল আটজনকেই গুলি করে মারা। কেন তাঁরা এ কাজ করলেন না, তার জন্য শোকজ করা উচিত।

[আরও পড়ুন- তৃণমূলই বিজেপি, ভুল বুঝে মানুষ ফিরছেন লাল ঝাণ্ডায়, বর্ধমান উত্তরের বাম প্রার্থী চণ্ডীচরণ আত্মবিশ্বাসী]

রবিবার, বিজেপি প্রার্থী পার্নো মিত্রের প্রচারে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, বাংলায় আর দুষ্টু ছেলেরা থাকবে না। যারা ভেবেছিলো কেন্দ্রীয় বাহিনীর বন্ধুকেটা শুধু দেখানোর জন্য তারা টের পেয়েছে। তারপরেই তিনি বলেন, কেউ বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে।
দিলীপ ঘোষের এহেন মন্তব্যের পর রাজ্য জুড়ে তুমুল বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল।

পর্যবেক্ষকদের অনেকের মতে, প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহার মন্তব্য দিলীপ ঘোষের মন্তব্যকে ছাড়িয়ে গেল।

Comments
Loading...