‘লক্ষ্য সোনার বাংলা’ গণ মতামত নিতে ২৯৪টি বিধানসভায় বিজেপির ডিজিটাল ভ্যান 

নয়া কর্মসূচির সূচনা নাড্ডার

বৃহস্পতিবার ‘লক্ষ্য সোনার বাংলা’ কর্মসূচির সূচনা করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বিজেপি সূত্রে খবর, একুশের নির্বাচনে  বাংলার মানুষের দাবিদাওয়া জানতে গেরুয়া শিবিরের নতুন এই কর্মসূচি। রাজ্যের মানুষের মতামত নিয়েই তৈরী হবে বিজেপির নির্বাচনী ইস্তেহার।  

এই উদ্দেশ্যে রাজ্যের ২৯৪ টা বিধানসভা কেন্দ্রে পৌঁছে যাবে বিজেপির ডিজিটাল মোবাইল ভ্যান। ওই  ভ্যানে গিয়ে সাধারণ মানুষ তাঁদের মতামত জানাতে পারবেন। এছাড়াও রাজ্যের ৩০ হাজারটি জায়গায় থাকবে সাজেশান ড্রপবক্স। ডিজিটাল মাধ্যমেও রাজ্যবাসী সোনার বাংলা গোড়ার ক্ষেত্রে তাঁদের পরামর্শ দিতে পারবেন। সেক্ষত্রে ট্যুইটার, ফেসবুকে হ্যাসট্যাগ লক্ষ্য সোনার বাংলা লিখে মতামত লিখলেই তা নজরে আসবে রাজ্য বিজেপির। সূত্রের খবর, সারা রাজ্য জুড়ে দু’কোটি মানুষের মতামত নেওয়ার লক্ষ্য রাজ্য বিজেপির। এই মতামত গুলি অনুযায়ী একুশের বিধাসভা ভোটের নির্বাচনী ইস্তেহার তৈরী করবে রাজ্য বিজেপি।  

এদিন এ প্রসঙ্গে নাড্ডা বলেন, আমরা মনে করি বাংলার মানুষই পশ্চিবঙ্গকে সোনার বাংলা বানাবে। তাই সাধারণ মানুষের মতামত নিয়েই আমরা ইস্তেহার বানাব। আমারদের লক্ষ্য ২ কোটি মানুষের মতামত নেওয়া। 

[আরও পড়ুন-  ব্যারাকপুরে স্থগিত পরিবর্তন যাত্রা, পুলিশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাওয়ার হুমকি]

তবে বিজেপির ইস্তেহারে কোন বিষয়গুলি গুরুত্ব পাবে তা নিয়ে কিছু খোলসা করেননি বিজেপি সভাপতি। এদিন ফের আরেকবার সিন্ডেকেট রাজ, দুর্নীতির প্রসঙ্গ তুলে তৃণমূলকে বিঁধেছেন তিনি। পাশাপাশি তাঁর দাবি, ক্ষমতায় এসে বাংলার হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনবে বিজেপি। 

বিজেপির এই কর্মসূচি প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ের কটাক্ষ, নির্বাচনের আগে স্টান্টবাজি করছে বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেস সারা বছর মানুষের সঙ্গে থাকে, নির্বাচনের আগে আলাদা করে আমাদের মানুষের কাছে পৌঁছেতে হয়না।     

       

          

 

Comments
Loading...