বুলন্দশহরে পুলিশ ইন্সপেক্টর খুনে ধৃত আরও ১

উত্তর প্রদেশের বুলন্দশহরে পুলিশ ইন্সপেক্টর সুবোধ কুমার সিংহ খুনে কালুয়া নামে আরও এক সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ।
গত ৩ রা ডিসেম্বর উত্তর প্রদেশের বুলন্দশহরের গো-মাংস উদ্ধার ও বেআইনি গো-কসাইখানা বন্ধের দাবিতে স্থানীয় কিছু মানুষের বিক্ষোভ হিংসার চেহারা নেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছোলে উত্তেজিত জনতা পুলিশকেও আক্রমণ করে। পুলিশ ইন্সপেক্টরকে ধাওয়া করে কেড়ে নেওয়া হয় তাঁর সার্ভিস রিভলবার। নৃশংসভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মারধর করা হয় সুবোধ কুমার সিংহ নামে ওই পুলিশ অফিসারকে। এতেই থামেনি তারা। গুলি করে হত্যা করা হয় পুলিশ ইন্সপেক্টরকে। এই ঘটনায় দেশ জুড়ে শুরু হয় নিন্দা। বিরোধীরা ঘটনার জন্য পরোক্ষে দায়ী করেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে।
মোবাইলে তোলা একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, সুবোধ কুমারকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নির্মমভাবে আঘাত করছে এক ব্যক্তি। তাকে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। কালুয়া নামে ওই ব্যক্তি অস্ত্র দিয়ে সুবোধ কুমারের হাতের আঙুল কাটে, তাঁর মাথায় ধারালো অস্ত্রের কোপ মারে। এরপরই পুলিশ ইন্সপেক্টরকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়।
পুলিশ জানায়, প্রশান্ত নাট, কালুয়া ও জনি, এই তিন জন সুবোধ কুমার সিংহকে আক্রমণ করে তাঁর সার্ভিস রিভলবার ছিনিয়ে নেয়। তিনজনেই বুলন্দশহরের বাসিন্দা।
ইতিমধ্যে, গত ২৮ শে ডিসেম্বর প্রশান্ত নাটকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পুলিশের সন্দেহ ওই ব্যক্তিই গুলি চালিয়েছিল সুবোধ কুমারের দিকে। কালুয়াকে গ্রেফতারের পর পুলিশ খোঁজ করছে জনির।
এর আগে জীতেন্দ্র ওরফে জিতু নামে এক ভারতীয় সেনাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানায়, বিক্ষোভকারীদের হয়ে স্লোগান দিচ্ছিল ওই সেনা জওয়ান। এমনকী বিক্ষোভকারীদের প্ররোচিত করতেও দেখা গেছে তাকে।

Comments
Loading...