আরএসএসের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া কেন্দ্রীয় বাহিনীর পর্যবেক্ষক কে কে শর্মাকে সরাতে কমিশনে চিঠি সিপিএমের

লোকসভা ভোট উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় পুলিশ বাহিনীর পর্যবেক্ষক হিসেবে বিএসএফের প্রাক্তন ডিজি কে কে শর্মাকে পশ্চিমবঙ্গ এবং ঝাড়খণ্ডের দায়িত্ব দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তার বিরোধিতা করে আগেই কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল তৃণমূল। বুধবার দলীয় ইশতেহার প্রকাশ করে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী নিজেও। এবার কার্যত একই পথে হাঁটল সিপিএম। পাশাপাশি ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিতর্কিত বয়ান নিয়েও কমিশনে নালিশ জানাল তারা।

বুধবার, সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য নীলোৎপল বসু নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়ে এই দুই বিষয়ে হস্তক্ষেপের আর্জি জানিয়েছেন। মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরাকে লেখা ওই চিঠিতে নীলোৎপলের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ডে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পাওয়া বিএসএফের প্রাক্তন ডিজিকে ২০১৮ সালে উর্দি পরিহিত অবস্থায় কলকাতায় আরএসএস-এর শাখা সংগঠন সীমান্ত চেতনা মঞ্চের অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছে। তাই কে কে শর্মাকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পর্যবেক্ষকের পদে বহাল রাখলে একটি বিশেষ দলের হয়ে পক্ষপাতিত্বের আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে বলে চিঠিতে অভিযোগ করেন নীলোৎপল বসু। তিনি বিএসএফের প্রাক্তন ডিজি কে কে শর্মাকে দায়িত্ব থেকে সরানোর দাবি জানিয়েছেন।

এছাড়াও, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের একটি ভিডিও ক্লিপ মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের নজরে এনে সিপিএমের তরফে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ করা হয়েছে। ওই ভিডিওতে বিরোধীদের হুমকি দিয়ে বিপ্লব দেব ঘোষণা করেন, ত্রিপুরার দুটি লোকসভা কেন্দ্রের ভোট এবার ‘অন্যরকম’ হবে। সরকারি ক্ষমতা ব্যবহার করে কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কী করে এরকম কথা বলতে পারেন, চিঠিতে জানতে চেয়েছে সিপিএম। এই দুটি বিষয়ে অবিলম্বে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য নীলোৎপল বসু।

Comments
Loading...