প্রকাশিত উচ্চ মাধ্যমিকের ফল, রেকর্ড পাসের হার ৯০.১৩%, ১০ অগাস্ট থেকে অনলাইনে ভর্তি

প্রকাশিত হল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল। পাশের হার ৯০.১৩ শতাংশ। সর্বোচ্চ নম্বর ৫০০ এর মধ্যে ৪৯৯। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শেষ তিনটি পরীক্ষা বাতিল করতে হয়েছে। কবে পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হবে, তা নিয়েও দীর্ঘদিন ধরে জল্পনা শেষে, শুক্রবার প্রকাশিত হল উচ্চমাধ্যমিকের ফল। শুক্রবার অনলাইনে পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হল। পড়ুয়াদের হাতে মার্কশিট পৌঁছবে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে। এ বছর মেধাতালিকা প্রকাশিত হচ্ছে না। সাফল্যের হারে এগিয়ে কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, কালিম্পং।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করেন উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস। তাঁর কথায়, এবার উচ্চমাধ্যমিকের পাশের হার ঐতিহাসিক ভাবে বেশি। পরীক্ষা দিয়েছিলেন ৭ লক্ষ ৬১ হাজার ৫৮৩ জন। পাশ করেছেন ৬ লক্ষ ৮০ হাজার ৫৭ জন। অর্থাৎ, মোট পাশের হার ৯০.১৩ শতাংশ। ছেলে ও মেয়েদের পাশের হারের তেমন কোনও ফারাক নেই। গড়ে ৯০ শতাংশের বেশি উত্তীর্ণ হয়েছেন। সবচেয়ে ভালো ফল করেছে যে জেলাগুলি সেগুলি হল, কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, কালিম্পং, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, নদিয়া ও ঝাড়্গ্রাম। এবার মার্কশিটের মতো রেপ্লিকা এদিনই দেওয়া হচ্ছে পড়ুয়াদের। তবে আগামী ৩১ জুলাই ৫২ টি বিতরণ কেন্দ্র থেকে মার্কশিট সংগ্রহ করতে পারবেন স্কুলগুলির প্রতিনিধি এবং অভিভাবকরা। সব পরীক্ষার্থী, তাঁদের শিক্ষক ও অভিভাবকদের শুভেচ্ছা জানিয়ে ট্যুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় আগেই জানিয়েছিলেন, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ফল প্রকাশ না হলে, সর্বভারতীয় স্তরে পরীক্ষায় বসতে পারবেন না উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীরা। সে কথা মাথায় রেখে বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশের পর মূল্যায়নের ভিত্তিতেই ফলপ্রকাশ হল।

এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই সার্ভার বসে যায়। ফলে কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে ফল দেখার প্রক্রিয়া।

Comments
Loading...