দেশের অখণ্ডতার বিরোধী ছবি বা খবর সম্প্রচার নয়, বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলিকে ফের নির্দেশিকা কেন্দ্রের

নয়া নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল প্রায় গোটা দেশ। বিভিন্ন রাজ্যে চলছে আন্দোলন। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত প্রায় ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম বহু। দেশজুড়ে এই অশান্তির আবহে বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলিকে ফের নয়া নির্দেশিকা দিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক (IB Advisory)।

শুক্রবার কেন্দ্রের নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় হিংসার আশ্রয় নেওয়ার অভিযোগে ১৫ জন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া গত কয়েক দিনে কংগ্রেস, সিপিএমের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী,পড়ুয়াকে আটক করা হয়েছে।
গত ১১ ডিসেম্বর নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সম্মতি দেওয়ার পরই বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলিকে কড়া নির্দেশিকা দিয়েছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক (IB Advisory)। টিভি চ্যানেলগুলির উদ্দেশে বার্তা ছিল, এমন কোনও খবর, তথ্য বা ছবি পরিবেশন ও সম্প্রচার করা যাবে না যা হিংসার উদ্রেক করে অথবা আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সমস্যা সৃষ্টি করে। টিভি চ্যানেলগুলির উদ্দেশে কেন্দ্রের আরও বার্তা ছিল, জাতীয়তা বিরোধী মনোভাব অথবা দেশের অখণ্ডতা বিরোধী কোনও খবর বা ছবি যেন সম্প্রচারিত না হয়।

২০ ডিসেম্বর দেশের সমস্ত বেসরকারি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলের উদ্দেশে আরও একটি নির্দেশিকা জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাতে বলা হয়েছে, গত ১১ ডিসেম্বর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের জারি করা নোটিস অনেক টিভি চ্যানেলই মানেনি। তাই ফের এই নির্দেশিকা জারি হল। নোটিসে লেখা হয়েছে, হিংসায় মদত দেয় এমন কোনও ছবি বা ঘটনা কোনওভাবেই যেন সম্প্রচারিত না হয়। দেশের আইন-শৃঙ্খলায় প্রভাব ফেলে বা কোনও দেশবিরোধী আচরণ যেন টিভি চ্যানেলগুলিতে দেখানো না হয়। দেশের অখণ্ডতা বিরোধী, কোনও বিশেষ সম্প্রদায় বা ব্যক্তির সমালোচনা, কুৎসা, অপপ্রচার সংক্রান্ত কোনও খবর সম্প্রচার করা যাবে না বলে কড়া নির্দেশ দিয়েছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক।

Comments
Loading...