পুজোর আগেই সমস্ত রাজ্যবাসীকে ডিজিটাল রেশন কার্ড দিতে চায় রাজ্য, বিশেষ উদ্যোগ মমতা ব্যানার্জি প্রশাসনের

ডিজিটাল রেশন কার্ড না থাকায় লকডাউন পরিস্থিতিতে বহু পরিযায়ী শ্রমিক বা তাঁদের পরিবারের হাতে স্পেশাল কুপন তুলে দিয়েছিল রাজ্য সরকার। এবার পুজোর আগে তাঁদের সবার হাতে ডিজিটাল রেশন কার্ড তুলে দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে মমতা ব্যানার্জি সরকার। সূত্রের খবর, ডিজিটাল রেশন কার্ড নেই এমন মানুষদের তথ্য সংগ্রহের কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে খাদ্য দফতর।

পুজোর আগেই যাতে সবার হাতে হাতে ডিজিটাল রেশন কার্ড পৌঁছতে পারে তার জন্য জেলা শাসকদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছে খাদ্য দফতর। এ নিয়ে বিজ্ঞপ্তিও জারি হয়েছে। জানা গিয়েছে, আপাতত আরকেএসওয়াই ২ বিভাগের গ্রাহকদের জন্য এই কাজ শুরু করেছে  খাদ্য দফতর।

আবেদন করেও ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে পাননি এমন গ্রাহক প্রচুর আছেন। তাই লকডাউন পরিস্থিতিতে ডিজিটাল কার্ডের বদলে এই সব মানুষের হাতে ফুড কুপন তুলে দেওয়া হয়েছিল। এমনকী যাঁরা ডিজিটাল কার্ডের জন্য আবেদন করেননি, তাঁরাও লকডাউনে বিশেষ কুপনের আবেদন করে তা পেয়েছেন। এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশ মেনে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই সবার তথ্য সংগ্রহের কাজ শেষ করতে হবে, এই মর্মে জেলা শাসকদের নির্দেশ দিয়েছে খাদ্য দফতর। এ নিয়ে সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দাঁড়িয়ে স্পেশাল কুপনে তিন মাস যাঁদের বিনামূল্যে খাদ্যশস্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে থেকে যাঁরা ডিজিটাল রেশন কার্ড পাওয়ার যোগ্য তাঁদের হাতে এবার সেই কার্ড তুলে দেওয়া হবে।

স্পেশাল কুপনে মে ও জুন মাসের বিনামূল্যের শস্য যাঁরা তুলে নিয়েছেন, তাঁদের তথ্য সংগ্রহের কাজ আগামী ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করার কথা। সেই অনুযায়ী কার্ডের অনুমোদন মিলতে পারে ৩০ জুলাই। তবে ৩০ জুন পর্যন্ত যাঁরা এখনও রেশন তুলতে পারেননি, তাঁদের তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে ১০ অগাস্ট পর্যন্ত। ১৪ অগাস্টের মধ্যে মিলতে পারে কার্ডের অনুমোদন।

জানা গিয়েছে, কোনওরকম গরমিল রুখতে এই তথ্য সংগ্রহের কাজ গ্রাহকদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে দফতরের নিজস্ব পোর্টাল থেকেই করা হচ্ছে। সেখানে কোথাও ভুলচুক আছে মনে করলে গ্রাহকদের কাছ থেকে নতুন করে তথ্য খতিয়ে দেখতে পারে সংশ্লিষ্ট দফতর। তবে ২৪ জুনের মধ্যে যাঁরা স্পেশাল কুপনের জন্য আবেদন করেননি, তাঁরা নতুন করে আবেদন করলে তা অনলাইনের মাধ্যমে করতে হবে।

কিন্তু যাঁরা ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করে সেই কার্ড এবং স্পেশাল ফুড কুপন কোনওটাই পাননি, তাঁদের কী হবে? সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছে সবাই যাতে ডিজিটাল রেশন কার্ড পেয়ে যান, তার প্রক্রিয়া চলবে। তবে যাঁরা আগে আবেদন করে রেখেছেন তাঁদের কাজ আগে করা হচ্ছে।

 

Comments
Loading...