যিশুর জন্মদিনে কেন জাতীয় ছুটি নয়, বিদ্বেষের রাজনীতি চলছে, বড়দিনের অনুষ্ঠান থেকে আক্রমণ মমতার

কেন যিশুর জন্মদিনে জাতীয় ছুটি নয়? ক্রিশ্চানদের ধর্মীয় আবেগে আঘাত হানা হচ্ছে, কেন্দ্রকে আক্রমণ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির। তাঁর অভিযোগ, দেশকে বিভাজনের চেষ্টা করছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। তাঁর প্রশ্ন, কেন আগের সরকারের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে যিশু খ্রিস্টের জন্মদিনে আর জাতীয় ছুটি ঘোষণা করে না কেন্দ্রের বিজেপি সরকার?সারা বিশ্বে যেখানে যিশুর জন্মদিন সমারোহে পালিত হয়। সেখানে এ দেশের ক্রিশ্চান ভাইবোনদের প্রতি বিদ্বেষ কেন? কেন্দ্রকে তোপ মমতার। বলেন, দেশে বিদ্বেষের রাজনীতি চলছে, সংবিধানে ধর্মনিরপেক্ষতা থাকলেও কেন্দ্রের সরকার তার মান্যতা দেয় না। পাশাপাশি এই মঞ্চ থেকে ফের কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মিথ্যে ছড়ানোর অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, দেশের মধ্যে বহু ক্ষেত্রে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলা। কিন্তু দিল্লি থেকে কিছুজন আসেন মিথ্যা এবং ভুয়ো ও মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে যান। তাঁরা সত্যিটা বলুন মানুষকে। মমতা যোগ করেন, এমএসএমই ক্ষেত্র, স্কিল সেক্টর, রাস্তা তৈরি থেকে বাংলার আবাস যোজনা, কারিগরি শিক্ষাতে বাংলা প্রথম। বাংলায় মাতৃত্বকালীন মৃত্যু হ্রাস পেয়েছে তাৎপর্যপূর্নভাবে। সাধারণ মানুষের জন্য বিনামূল্যে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য পরিষেবা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। কন্যাশ্রী, সবুজসাথীর মতো প্রকল্প আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃতি পেয়েছে। রাজ্যের পড়ুয়াদের ট্যাব বিতরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। এগুলো কি সামাজিক কাজ নয়? কলকাতা ক্রিস্টমাস ফেস্টিভ্যালের অনুষ্ঠান থেকে কেন্দ্রীয় নেতাদের বিঁধে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, মানুষের কল্যাণে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে বাংলা। কিন্তু এ নিয়ে কয়েকজন ঈর্ষা করে বাংলাকে। তারা শুধু দেশের বিভাজন চায়।

Comments
Loading...