বন দফতরে নিয়োগের নামে কত টাকা নিয়েছে খোঁজ নিন, রাজীবকে আক্রমণ মমতার

পরিযায়ীদের আনতে ১ টি টাকাও দেয়নি কেন্দ্র অথচ দুর্নীতিবাজদের জন্য চার্টার্ড প্লেন!

ক’দিন আগেই দিল্লিতে অমিত শাহের বাসভবনে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন রাজীব ব্যানার্জি। তারপর থেকে গেরুয়া শিবিরের জনসভায় নিয়ম করে মমতা সরকারের দিকে তোপ দাগছেন রাজীব। এবার সেই ইস্যুতে মুখ খুললেন তৃণমূল নেত্রী। আলিপুরদুয়ারের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য, বন সহায়ক পদে নিয়োগে কারসাজি করেছিল। তদন্ত চলছে।

বঙ্গ রাজনীতিতে দলবদলের হিড়িক পড়ে গিয়েছে। তৃণমূল থেকে বিজেপি বা বিজেপি থেকে তৃণমূলে ঢোকার লম্বা লাইন পড়েছে বলে দাবি দুই তরফেই। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন শুভেন্দু। তাঁর দেখানো পথেই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন রাজীব ব্যানার্জিও। মমতা ব্যানার্জি আগেই দাবি করেছিলেন, দুর্নীতি সংক্রান্ত ব্যাপারে যারা যুক্ত, তারাই কালো টাকা রক্ষায় ভোটের আগে বিজেপিতে যাচ্ছে। এবার দলনেত্রীর মুখে উঠে এলো বনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ। 

বুধবার আলিপুরদুয়ারের সভা থেকে তৃণমূল নেত্রী বলেন, যে ছেলেটা আমাদের ছেড়ে চলে গেছে, অনেকেই আমার কাছে অভিযোগ করেছে যে বন সহায়ক পদে নিয়োগ নিয়ে ও কিছু কারসাজি করেছে। অভিযোগের তদন্ত করছে রাজ্য সরকার। ভোট ঘোষণা হয়ে গেলে তদন্তের অগ্রগতি থমকে যেতে পারে। কিন্তু ভোট মিটলেই খুঁজে বের করব কোথায় অনিয়ম। তারপরই মমতা ব্যানার্জি বলেন, আমি কথা দিলাম, দুর্নীতির কারণে যারা বঞ্চিত হয়েছেন তাদের ন্যায় বিচার দেব। আমার ওপরে ভরসা রাখুন, সব রিভিউ করবে সরকার। রাজীবকে নিশানা করে জনতার উদ্দেশে মমতার মন্তব্য, যখন বড়ো বড়ো কথা বলবে, খোঁজ নিন বন দফতরে চাকরি দেওয়ার নাম করে কত টাকা নিয়েছে। 

রাজীবদের দিল্লি নিয়ে যেতে অমিত শাহের চার্টার্ড প্লেনের কথা টেনে এনে তৃণমূল নেত্রীর আক্রমণ, লকডাউনে পরিযায়ীদের আনতে ১ টি টাকাও দেয়নি কেন্দ্র অথচ দুর্নীতিবাজদের চার্টার্ড প্লেনে করে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে! 

আলিপুরদুয়ারের সভার শুরুতেই মমতা ব্যানার্জি বলেন, লোভী আর ভোগীদের তাড়াবার আগেই দল ছেড়ে চলে যাচ্ছে। আর কেউ যেতে চাইলে চলে যান। কিন্তু তৃণমূলে থাকতে চাইলে শৃঙ্খলাবদ্ধ সৈনিক হিসেবে থাকতে হবে। এদিন শুভেন্দু-শোভন-মুকুল রায়দেরও কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন তৃণমূল নেত্রী। বলেন, এখন দুর্নীতিবাজরা পালাচ্ছে। পালাবেই তো… বিধানসভার পর দোকান বন্ধ হয়ে যাবে। লেগে আগুন লাগলে কেমন লাগে এবার বুঝবেন। তবে কোথাও মুখ্যমন্ত্রী কারও নাম নেননি।

Comments
Loading...