তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যায় কেন জানেন? কী বললেন মমতা?

তৃণমূলত্যাগীদের তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রীর

‘গোটা ভারতের বুকে আমাকে একটু একটু ওরা ভয় পায় ওরা। জানে আমি মাথা বিক্রি করি না। তাই পছন্দ করে না। জানে আমি নিজেকে বেচি না। বন্দুকের সামনে দাঁড়াব তবু বাংলাকে বেচতে দেব না।’ নদিয়ার রানাঘাট থেকে বিজেপিকে নিশানা তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির।
আর এই মন্তব্য করার ঠিক আগেই সোমবার নদিয়ার রানাঘাটের জনসভা থেকে তৃণমূলত্যাগী নেতাদের বিজেপিতে যোগদানের ‘রহস্য’ ফাঁস করলেন মমতা।

বিধানসভা ভোটের আগে শুভেন্দু সহ একের পর এক তৃণমূল নেতা-কর্মী বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এ নিয়ে মমতার মন্তব্য, ‘সবাইকে জব্দ করার জন্য কেন্দ্রীয় এজেন্সি লাগানো হচ্ছে।’ তাঁর কথায়, ‘অনেকে তৃণমূল ছেড়ে চলে গিয়েছে? কেন গেছে বলুন তো? অনেক টাকা করেছে এঁরা। তাই কাউকে ইডি, সিবিআইর ভয় দেখিয়েছে।’ মমতার আরও অভিযোগ, বিজেপিতে টানতে ওই নেতাদের বলা হচ্ছে, ‘যদি টাকা রাখতে চাও, কালো টাকা সাদা করতে চাও… তাহলে বিজেপিতে এসো।

এরপর বিজেপিকে ভারতীয় জাঙ্ক পার্টি বলে কটাক্ষ করে মমতার মন্তব্য, ‘বিজেপি দুর্নীতি করলে সাতখুন মাপ, অন্য কেউ করলে বন্ধ ঝাঁপ। বিজেপি এখন ওয়াশিং মেশিন, নিরমা ওয়াশিং পাউডার। তাই কাউকে ভয় দেখিয়ে, কাউকে টাকা দিয়ে কিনছে।’

এই প্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যমকেও একহাত নেন তিনি। বলেন, একটা, দুটো ছাড়া প্রত্যেকটা মিডিয়া বিক্রি হয়ে গেছে। মিডিয়ার কথা শুনে অনেকে ভাবছেন সত্যি কি ওরা (বিজেপি) আসবে? তারপরেই মমতার কটাক্ষ, ‘কোথা থেকে আসবে? তফশিলি, নমশূদ্র, ছাত্র যৌবন কেউ ওদের ভোট দেবে না। তাহলে কি হিন্দু মুসলিম ভাগাভাগি করে ভোট করবে? সেটাও হবে না। এ বাংলা নেতাজি, বিদ্যাসাগরের বাংলা, এখানে ভাগাভাগি করা যায় না।
মমতা বলেন, ভোটের সময় পুরো বিজেপি এখন বাংলায় এসে পড়বে। গোটা ভারতের বুকে এরা আমাকে একটু একটু ভয় পায়। জানে আমি মাথা বিক্রি করি না। বন্দুকের সামনে দাঁড়াব তবু বাংলাকে বেচতে দেব না।

এদিনও কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতাদের বহিরাগত বলে নিশানা করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, ভোটের জন্য অনেককে বাইরে থেকে আনা হচ্ছে। এঁদের দেখে দেখে নিয়ে আসা হচ্ছে, এঁদের অনেকে বাংলা জানেন। তাঁরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলছেন কী দিয়েছে রাজ্য সরকার। এরপরেই মমতার তোপ, টাকা ছড়িয়ে ভোট কেনার চেষ্টা চলছে। কিন্তু ভোট বিক্রি করতে দেবেন না। মমতার কথায়, কারও ভোটের দাম মাত্র ৫ হাজার টাকা নয়। হাজার হাজার কোটি টাকা। কিন্তু টাকা দিলে তা হজম করে দেবেন। কার টাকা কাকে দিচ্ছে?’ কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রীর।

Comments
Loading...