চায়ের সঙ্গে স্নাক্স যদি হয় চিংড়ি বড়া! জমে যাবে সন্ধ্যেখানা

বাঙালি আর চিংড়ির গাঁটছড়া বাঁধা ফুটবলের মাঠ থেকে। মোহনবাগানের জয় মানেই ঘরে চিংড়ির আগামন। পুজোর দিনে খাবার পাতে চিংড়ি চাই…। কিন্তু বারো মাসে তেরো পার্বণ হলেও অন্য দিনগুলো কী হবে?

বাঙালির জীবনে চিংড়ি মালাইকারি অনেকটা জায়গা করে নিয়েছে। কিন্তু চায়ের সঙ্গে যদি চিংড়ির আইটেম আনা যায়। তবে তো একদম জমে ক্ষীর…। স্বাদে হালকা বদল আনতে চায়ের আড্ডায় রাখাই যেতে পারে চিংড়ি বড়া। স্নাক্সও হবে তার সঙ্গে জড়িয়ে থাকবে বাঙালির ইমসন।

 উপকরণ

মাঝারি মাপের বাগদা চিংড়িঃ ১৫০ গ্রাম

কর্ন ফ্লাওয়ারঃ ১ টেবিল চামচ

ডিমঃ ১ টি

ময়দাঃ ২ টেবিল চামচ

নুনঃ স্বাদ অনুযায়ী

আদা বাটাঃ ১ চা চামচ

রসুন বাটাঃ ১ চা চামচ

তিলঃ পরিমাণ মতো

ধনে পাতা বাটাঃ ২ চা চামচ

হলুদঃ রঙ অনুযায়ী

পুদিনা পাতা বাটাঃ ১ চা চামচ

ভিনিগারেঃ পরিমাণ মতো

প্রণালী: চিংড়ি ভাল করে ধুয়ে তার কালো সুতোর শির বার করে নিন। কিছু ক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন ভিনিগারে। মাছ একটু নরম হবে এলে। এ বার হলুদ-সহ সব বাটা মশলা মাখিয়ে নিন চিংড়ির গায়ে। এর পর একটি পাত্রে ময়দা, কর্ন ফ্লাওয়ার ও ডিম এক সঙ্গে ফেটিয়ে নিন। মশলা মাখানো চিংড়ি এবার ফেটিয়ে নেওয়া তরলের মধ্যে ডোবান আর ছাঁকা তেলে ভাজুন। পরিবেশনের সময় পাশে একটু টমাটো সস বা কাসুন্দি রাখুন, দেখবেন জমে যাবে আড্ডার আসর।

Comments
Loading...