বুলন্দশহরের পর উত্তর প্রদেশের গাজিপুর, প্রধানমন্ত্রীর সভা থেকে ফিরেই অন্য ডিউটিতে গিয়ে খুন পুলিশ কর্মী

প্রধানমন্ত্রীর সভার ডিউটি সেরেই অন্য এক বিক্ষোভ কর্মসূচির ডিউটি করতে গিয়ে আন্দোলনকারীরের ছোড়া পাথরের ঘায়ে উত্তর প্রদেশে মৃত্যু হল পুলিশ কর্মীর।
কয়েক ঘন্টাই অতিক্রম হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জনসভা করে গেছেন উত্তরপ্রদেশের গাজিপুর থেকে। প্রধানমন্ত্রীর ফিরে যাওয়ার পরেই গাজিপুরে বিক্ষোভরত জনতার ছোড়া পাথরের ঘায়ে মৃত্যু হল এক পুলিশ কনস্টেবলের। মৃত পুলিশ কর্মীর নাম সুরেশ ভাটস।
জানা গেছে, গাজিপুরের নানহারা পুলিশ স্টেশনে কর্মরত ছিলেন সুরেশ। প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় নিরাপত্তার জন্য পাঠানো হয়েছিল তাঁকে। শনিবার দুপুরে যখন তিনি সেখান থেকে ফিরে নিজের পুলিশ স্টেশনে আরও কয়েকজন সহকর্মীর সঙ্গে কাজে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন, সে সময় তাঁদের বলা হয় স্থানীয় হাইওয়েতে অবরোধ চলছে, তা দেখতে যেতে। নিশাদ সম্প্রদায়ের লোকেরা সংরক্ষণের দাবিতে ওই হাইওয়ের একাংশ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। অভিযোগ, পুলিশের এই দলটি সেই অবরোধ তুলতে যেতেই মারমুখী হয়ে ওঠেন বিক্ষোভকারীরা। পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি পাথর ছোড়া হয়। পাথরের ঘায়ে মারা যান সুরেশ ভাটস নামে ওই পুলিশ কর্মী।
ঘটনার প্রেক্ষিতে জেলা শাসক ও জেলা পুলিশ সুপারকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার ও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মৃত পুলিশ কর্মীর পরিবারকে মোট ৫০ লক্ষ টাকা সাহায্যের ঘোষণা করা হয়েছে রাজ্যের তরফে।
উত্তর প্রদেশে এই নিয়ে এক মাসে গণপ্রহারে দুই পুলিশ কর্মীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠল। এর আগে চলতি মাসের ৩ তারিখ বুলন্দশহরে গো-রক্ষকদের তাণ্ডবের শিকার হয়ে সুবোধ কুমার সিংহ নামের আরও এক পুলিশ অফিসারের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

Comments
Loading...