২০১৮ সালে দেড় লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে শুধু পথ দুর্ঘটনায়, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু যোগীর রাজ্যে, দিল্লিতে প্রতি ৫ ঘণ্টায় মৃত্যু ১

২০১৮ সালে দেড় লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে পথ দুর্ঘটনায়। রাজ্যগুলির মধ্যে সর্বোচ্চ মৃত্যু উত্তরপ্রদেশে। রাজধানী দিল্লিতে প্রতি ৫ ঘণ্টায় একটি করে মৃত্যুর কারণ পথ দুর্ঘটনা, এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল কেন্দ্র।
সম্প্রতি কেন্দ্রীয় পরিবহণ দফতর ২০১৮ সালের পথ দুর্ঘটনা সংক্রান্ত রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। ওই রিপোর্ট বলছে, রং সাইড দিয়ে গাড়ি চালানোর জন্য ২০১৮ সালে প্রতিদিন গড়ে ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বছরে রেষারেষি করে গাড়ি চালানোর ফলে দুর্ঘটনায় প্রাণ গিয়েছে ৪ হাজার ৭৮০ জনের। ২০১৮ সালে সব মিলিয়ে ৪ লক্ষ ৬৭ হাজার ৪৪ টি দুর্ঘটনা লিপিবদ্ধ করেছে কেন্দ্র। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ২০১৮ সালে প্রতিদিন গড়ে ১ হাজার ২৮০ টি দুর্ঘটনা হয়েছে।
আগের বছরের তুলনায় ২০১৮ সালে গাড়ি সংঘর্ষের ঘটনা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বছরে পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৪১৭ জন। যা গত বছরের চেয়ে ৩,৫০০ জন বেশি। আর রাজ্যভিত্তিতে পথ দুর্ঘটনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে। ২০১৮ সালে উত্তরপ্রদেশে মোট ২২ হাজার ২৫৬ জন মানুষের মৃত্যু হয় সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। অন্যদিকে, রাজধানী দিল্লিতে প্রতি ৫ ঘণ্টায় একটি মৃত্যুর কারণ হিসেবে উঠে এসেছে পথ দুর্ঘটনা। ২০১৮ সালে প্রতি ১০ টি পথ দুর্ঘটনার মধ্যে একটি হয়েছে ভারতের রাজধানীতে। যা গত পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বলে জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য। ১০ লক্ষের বেশি জনসংখ্যা বিশিষ্ট শহরে ২০১৮ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৭ হাজার ৭০৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন। যার মধ্যে দিল্লিতেই এই সংখ্যা ১ হাজার ৬৯০। মুম্বইয়ের ৪৭৫ জন ও কলকাতায় ২৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ওই বছরে।
কেন্দ্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, দু’চাকার যানে সবচেয়ে বেশি (৩৪ শতাংশ) ভয়াবহ দুর্ঘটনা হয়েছে গত বছর। পথ দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ হিসেবে উঠে এসেছে গাড়িগুলির বেপরোয়া গতি। ২০১৮ সালে ৬৪.৪ শতাংশ মানুষই এই বেলাগাম গতির বলি হয়েছেন। পাশাপাশি, উলটো পথে গাড়ি চালিয়ে মারা গিয়েছেন ৫.৮ শতাংশ।

 

Comments
Loading...