নতুন বছরের প্রথম দিনেই দূরপাল্লার সাধারণ ও মেল-এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া বাড়াল রেল। বিভিন্ন শ্রেণিতে কিলোমিটার পিছু এক থেকে চার পয়সা পর্যন্ত ভাড়া বাড়ল। সব শ্রেণির বাতানুকূল কামরার গড় ভাড়া বাড়ানো হল কিলোমিটার পিছু ৪ পয়সা হারে।
৩১ ডিসেম্বর রেল মন্ত্রকের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, শহর ও শহরতলির লোকাল ট্রেনের ভাড়া ও মান্থলি টিকিটের দাম অপরিবর্তিত থাকছে।
রেলের সর্বোচ্চ ভাড়া বেড়েছে বাতানুকূল শ্রেণিতে। কিলোমিটার প্রতি ৪ পয়সা হারে। সোজা কথায়, দিল্লি-কলকাতা রাজধানী বা পূর্বা এক্সপ্রেসের মতো ট্রেনে এসি শ্রেণি পিছু ৬০ থেকে ৬৫ টাকা পর্যন্ত ভাড়া বাড়ছে। কলকাতা-মুম্বই রুটের ট্রেনে এসি ক্লাসের ক্ষেত্রে এই যাত্রীভাড়া বৃদ্ধির পরিমাণ প্রায় ৮০ টাকা। পাশাপাশি, স্লিপার শ্রেণিতে বাড়ানো হয়েছে কিলোমিটার প্রতি ২ পয়সা।
মঙ্গলবার ওই নির্দেশিকায় রেল জানিয়েছে, রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্ত, বন্দে ভারত, তেজস, হামসফর, মহামান্য, গতিমান, অন্তোদয়, গরিব রথ, জনশতাব্দী, রাজ্য রানি, যুব এক্সপ্রেস, সুবিধা এবং স্পেশাল চার্জ সহ স্পেশাল ট্রেন, নন-সাবার্বান এসি মেমু, নন-সাবার্বান এসি ডেমুর ভাড়াও এই সংশোধিত যাত্রীভাড়ার তালিকা মেনে পরিবর্তিত হয়ে গেল মধ্যরাত থেকে। তবে রিজার্ভেশন ফি, সুপারফাস্ট সারচার্জের ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না।
একইসঙ্গে রেলের ঘোষণা, যাঁরা ইতিমধ্যেই পুরনো হারে ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি অথবা তার পরের যাত্রার জন্য টিকিট কেটেছেন, সেইসব যাত্রীর কাছ থেকে বর্ধিত বাকি মূল্য নেওয়া হবে না। ১ জানুয়ারির আগে ট্রেনের টিকিট কাটা থাকলে পুরনো মূল্যেই ভ্রমণ করতে পারবেন যাত্রীরা।
এর আগে ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে রেলের যাত্রীভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রেলমন্ত্রক। ন্যূনতম যাত্রীভাড়া পাঁচ টাকা থেকে বেড়ে ১০ টাকা হয়েছিল। তবে তা নন-সাবার্বান ট্রেনের সেকেন্ড ক্লাসের ক্ষেত্রে কার্যকর করা হয়েছিল। পরে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্ত এক্সপ্রেসের মতো প্রিমিয়াম ট্রেনের টিকিট বুকিংয়ে ফ্লেক্সি ফেয়ার ব্যবস্থা চালুর সিদ্ধান্ত নেয় মোদী সরকার।
রেলমন্ত্রক জানিয়েছে, এটি রেলের যাত্রীভাড়ার ‘বেসিক’ বৃদ্ধি। মাসখানেক আগেই ট্রেনের খাবারের দাম বাড়ানো হয়েছে। রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্তের মতো ট্রেনে টিকিটের দামের সঙ্গেই খাবারের মূল্য ধরা থাকে। ফলে এবার মূল টিকিটের সঙ্গে বর্ধিত ‘বেসিক’ যাত্রীভাড়া যুক্ত হলে তা আরও মহার্ঘ হতে চলেছে।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

No Pandals in UP Durga Pujo
Ladakh T 72 Tanks Posted