করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে হাহাকার গোটা দুনিয়ায়। মারণ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে আজ কার্যত বিচ্ছিন্নতায় মানব সভ্যতা। মৃত্যুপুরী যেন চিনের উহান থেকে রোম, যেখানে রাস্তায় পা রাখতে ভয় পাচ্ছেন সেখানকার মানুষও!

এই মহামারির প্রকোপ থেকে প্রাণভয়ে কাঁপতে থাকা ভারতীয়দের উদ্ধার করবে কে? উত্তর, এয়ার ইন্ডিয়া। দশকের পর দশক ধরে বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে যে কোনও ভারতীয় বিপদে পড়লেই মুশকিল আসান অধুনা মরণাপন্ন এয়ার ইন্ডিয়াই। এবারও তার অন্যথা হয়নি।

এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের থাবায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে চিন এবং ইতালি। উহান থেকে এয়ার ইন্ডিয়া সেখানে আটকে পড়া ভারতীয়দের উদ্ধার করে এনেছে আগেই। কিন্তু এবার গন্তব্য আরও কঠিন, আরও নির্মম। এবার মিশন ইতালি।

জানেন, বর্তমান দুনিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই রেসকিউ অপারেশনের দায়িত্ব ছিল কার কাঁধে?

তিনি এয়ার ইন্ডিয়ার সিনিয়র কমার্শিয়াল পাইলট স্বাতী রাভাল। ২৬৩ জন ভারতীয়কে ইতালি থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসতে এয়ার ইন্ডিয়া ভরসা রেখেছিল হাসিখুশি এই পাইলটের উপরই।

উত্তরপ্রদেশের রায়বেরেলি থেকে পাইলটের কোর্স করার পর ২০০৬ সালে এয়ার ইন্ডিয়ায় যোগ দেন গুজরাতের আহমেদাবাদের বাসিন্দা স্বাতী রাভাল। তারপর থেকে বিশ্বের আর পাঁচটা শহরের মতোই রোম গিয়েছেন অসংখ্যবার। কিন্তু করোনাভাইরাসের ভয়ে ঠকঠক করে কাঁপতে থাকা মৃত্যুপুরী ইতালি, এই প্রথম দেখছেন স্বাতী রাভাল।

২১ তারিখ সন্ধেবেলায় মেয়ে আমাকে ফোন করে জানায়, তাঁকে রোম অ্যাসাইমেন্ট দেওয়া হয়েছে। আমি বলি তুই কী বললি? আমি হ্যাঁ বলে দিয়েছি বাবা। মেয়ের কথা শুনে গর্বে বুক ভরে যায় অবসরপ্রাপ্ত বনকর্তা এস ডি রাভালের। পরিস্থিতি যাই হোক, দায়িত্ব পালন করতেই হবে, জানিয়েছেন স্বাতীর বাবা এস ডি রাভাল।

২২ জন ক্রু মেম্বারকে নিয়ে স্বাতী উড়ে যান রোমের উদ্দেশে। সেখানে বিমাবন্দরে এনে রাখা হয়েছিল ইতালির বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া ভারতীয়দের। সংখ্যায় তাঁরা ২৬৩ জন। স্বাতীর নেতৃত্বে চলে গোটা অপারেশন। তারপর ফের দিল্লির উদ্দেশে পাড়ি দেন তিনি।

দুনিয়ার এক প্রান্ত থেকে এয়ার ইন্ডিয়ার দুধ সাদা বিমান এক সময় আকাশের বুক চিড়ে আসে দিল্লিতে। ককপিটের অতন্দ্র প্রহরী স্বাতী রাভাল তখনও অক্লান্ত।

ভারতীয়দের নিয়ে স্বাতী দেশে ফেরার পর অভিনন্দন জানিয়ে ট্যুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। পালটা ট্যুইটে বিমান কর্মী থেকে আইটিবিপি জওয়ানদের প্রশংসা করেছেন স্বাতী। এবং কৃতিত্ব দিয়েছেন এয়ার ইন্ডিয়াকে। যে এয়ার ইন্ডিয়ার ভবিষ্যতই আজ প্রশ্নের মুখে!

 

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: স্বাতী রাভালের এই খবরটি আমাদের চোখে পড়ে টাইমস অফ ইন্ডিয়া পত্রিকায়। যেখানে তাঁর পরিচয় দিতে গিয়ে লেখা হয়েছে, ‘The Brave mother who brought 263 stranded Indians home from Italy’। আমরা মনে করি, এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট স্বাতী রাভালের পরিচয় এটা নয় যে, তিনি একজন সাহসী মা। তাঁর পরিচয়, তিনি একজন সাহসী এবং দক্ষ বিমান চালক। এই কাজটিই একজন পুরুষ পাইলট করলে, তাঁকে নিশ্চিতভাবেই সাহসী বাবা বলে মানুষের কাছে পরিচিত করাতো না দেশের অন্যতম প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম। একজন মহিলার পরিচয়, তিনি মা এবং একজন পুরুষের পরিচয়, তিনি কতটা দক্ষ, এই ভেদাভেদ আমাদের সমাজে যতদিন ওপর থেকে নীচে নামবে, ততদিন একজনের ধর্ষণে চারজনের ফাঁসি হলেও, দেশের পরিস্থিতি পাল্টাবে না। এটাই আমাদের বিশ্বাস, আমাদের অবস্থান।)

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Coronavirus in Shoes
Is India In Stage 3