বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন বের করল রাশিয়া! প্রথম টিকা পুতিনের মেয়েকে

করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি পাবে বিশ্ব! আশা জাগিয়ে মঙ্গলবার বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক ৫’ আনল রাশিয়া। প্রথমবার টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে খোদ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়ের শরীরে।

মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, ‘আজ সকালে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে বিশ্বে প্রথম কোনও ভ্যাকসিন নথিবদ্ধ হয়েছে। আমার মেয়ের শরীরে টিকাটি প্রয়োগ করা হয়েছে। বলা যেতে পারে সেও এই গবেষণার অংশ।’

এই প্রতিষেধক ঘিরে করোনার সঙ্গে লড়াই তীব্র করে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে রাশিয়া। কয়েক কোটি টিকা দেশের মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে তৎপর হয়েছে মস্কো। শীঘ্রই শুরু হয়ে যাবে গণ উৎপাদন।

কয়েকদিন আগেই প্রতিষেধক বাজারে আসার দিন আরও এগিয়ে আনার কথা ঘোষণা করেছিল রুশ প্রশাসন। তবে নির্ধারিত সময়ের একদিন আগেই, ১১ অগাস্টের মধ্যেই সেই কাজ করে ফেলল বলে দাবি মস্কোর।

যদিও গত সপ্তাহে রাশিয়াকে নিরাপদ ভ্যাকসিন তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় গাইডলাইন এবং সমস্ত পর্যায় মেনে এগোতে আবেদন করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)।

রাশিয়ার গ্যামালিয়া ইনস্টিটিউট অফ এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজিতে এই করোনা প্রতিষেধক তৈরির কাজ হয়েছে। ইতিমধ্যে তা বিভিন্ন ধাপে ১৬০০ জনের উপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগও হয়েছে বলে দাবি রুশ চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের। তাঁদের আরও দাবি, ওই টিকা প্রয়োগে তাঁদের শরীরে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডি কোভিড- ১৯ এর সঙ্গে যুঝতে প্রস্তুত। তাই হিউম্যান ট্রায়াল পর্ব সাফল্যের সঙ্গে পেরিয়ে এসেছেন বলে দাবি করেছেন রুশ প্রশাসনের শীর্ষকর্তারা। সে দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন, সেপ্টেম্বরেই ভ্যাকসিন উৎপাদনের গতি আরও বাড়ানো হবে। সব ঠিক থাকলে রাশিয়াই হবে প্রথম দেশ, যারা সারা বিশ্বকে করোনা ভ্যাকসিন উপহার দেবে।

Comments
Loading...