পুরুলিয়ায় অমিত শাহ: স্ক্যাম চাইলে দিদি, স্কিম চাইলে মোদী

পুরুলিয়ার বাঘমুণ্ডি থেকে সভা শুরু

বাংলায় প্রথম দফার ভোট প্রচারের শেষ প্রহর। রাজনৈতিক দলগুলির প্রচার এখন তুঙ্গে। প্রচারের শেষ দিনে চারটি সভা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পুরুলিয়ার বাঘমুণ্ডি থেকে সভা শুরু। এরপর ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় জনসভা করেন শাহ।
বাঘমুন্ডিতে সভামঞ্চে উঠেই অমিত শাহ পুরুলিয়ার জল সমস্যার কথা তুলে ধরেন। বলেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে পুরুলিয়ায় আর জলের সমস্যা থাকবে না। জল সমস্যা সমাধানে ১০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হবে‌। মমতা সরকারকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘স্ক্যাম’ চাইলে দিদিকে ভোট দিন। ‘স্কিম’ চাইলে নরেন্দ্র মোদীকে ভোট দিন।
বাম-তৃণমূলকে আক্রমণ করে শাহ বলেন, বাংলায় বেকারত্বের সংখ্যা চরম মাত্রা ছুঁয়ে ফেলেছে। তাঁর অভিযোগ, প্রথমে বামেদের আমলে শিল্প বন্ধ হয়েছে। তৃণমূলের আমলে বিনিয়োগ বন্ধ হয়েছে। বিজেপি ক্ষমতায় এলে বেকারত্বের হার কমবে, ৫ বছরে প্রতি পরিবারে অন্তত ১ জনকে চাকরি দেওয়ার হবে বলেও দাবি শাহের।
বাংলায় কেন্দ্রীয় সরকারের অবদানের কথা উল্লেখ করে তিনি জানান, ১২ কোটির বেশি গরিব মানুষকে গ্যাসের সিলিন্ডার দিয়েছে মোদি সরকার। ১১ কোটি মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। বিজেপি ক্ষমতায় এলে ১ বছরে ১৮ হাজার টাকা প্রত্যেক কৃষকের অ্যাকাউন্টে দেওয়া হবে, প্রতিশ্রুতি অমিত শাহের।
সভায় ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গি নিয়ে মমতা ব্যানার্জির দিকে আক্রমণ শানান। বলেন, বাংলা থেকে ম্যালেরিয়া ও ডেঙ্গু তাড়াতে হলে আগে দিদিকে তাড়াতে হবে।
জনসভায় নাগরিকত্ব ইস্যু নিয়ে শাহের দাবি, মতুয়া থেকে শুরু করে যত শরণার্থী এসেছেন সবাইকে নাগরিকত্ব দিতে বদ্ধপরিকর বিজেপি সরকার। তাঁর দাবি, পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম বড় সমস্যা অনুপ্রবেশ। বিজেপি ক্ষমতায় এলে অনুপ্রবেশকারী কেন একটি পতঙ্গও ঢুকতে পারবে না বলে এদিন ফের হুঙ্কার ছাড়েন অমিত শাহ।

Comments
Loading...