শাহের সভায় মাঠ ফাঁকা! দাবি তৃণমূলের, হেলিকপ্টারে যান্ত্রিক ত্রুটির পাল্টা দাবি বিজেপির

রাজ্যে ২০০ আসনের লক্ষ্যমাত্রা ধরেছেন অমিত শাহ। বাংলা দখলের লক্ষ্যে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড়ো রাজনৈতিক দল বিজেপি। মোদী-শাহের পাশাপাশি নাড্ডা থেকে রাজনাথ সিংহ, যোগী আদিত্যনাথ থেকে বিপ্লব দেব, কেশবপ্রসাদ মৌর্য নিত্য সভা করছেন বাংলার গ্রামে শহরে। কিন্তু ভোটের ঠিক মুখে গুঞ্জন, ভিড় হচ্ছে না বিজেপির সভা সমিতিতে। 

ঝাড়গ্রামে বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার সভা বাতিল করতে হয়েছিল ভিড় না হওয়ায়। এবার কি একই ঘটনা শাহের সভাতেও? 

সোমবার ঝাড়গ্রামে সভা করতে আসার কথা ছিল অমিত শাহের। কিন্তু তিনি খড়গপুরের হোটেল থেকেই ভার্চুয়ালি ভাষণ দেন। আর তারপরই তৃণমূলের তরফে দাবি করা হচ্ছে, ভিড় না হওয়াতেই শাহ এলেন না, বদলে ভার্চুয়ালি ভাষণ।

কিন্তু সত্যি কি তাই? ঝাড়গ্রামে শাহ সভা করতে আসবেন এটা আগে থেকেই ঠিক ছিল। কিন্তু সোমবার সকাল থেকেই সভা থেকে সংবাদ মাধ্যমের লাইভ টেলিকাস্টে মাঠ ফাঁকা থাকার চিত্র উঠে আসছিল। ফলে সভার সময় ক্রমেই পিছিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত জানা যায় খড়গপুরের হোটেলে বসেই ভাষণ দেবেন অমিত শাহ। ফাঁকা চেয়ারের ছবি ততক্ষণে ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই অবস্থায় ডেরেক ও’ব্রায়ান সেই ছবি ট্যুইট করে খোঁচা দেন। 

যদিও বিজেপি তৃণমূলের এই দাবি মানতে রাজি নয়। তাঁরা বলছেন, শাহের হেলিকপ্টারে যান্ত্রিক ত্রুটির জন্যই ঝাড়গ্রাম যেতে পারেননি অমিত শাহ। পরের সভায় যেতেও একই কারণে দেরি হয়েছে। কিন্তু তৃণমূল তা মানতে নারাজ। তাদের দাবি, নাড্ডার পর এবার শাহের সভাতেও ফাঁকা মাঠ প্রমাণ করল মানুষ বিজেপির সঙ্গে নেই।

Comments
Loading...