দেখুন ৯ জুলাই থেকে রাজ্যে লকডাউন কোন কোন এলাকায়, তার পুরো তালিকা

৯ জুলাই, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫ টা থেকে রাজ্যের কনটেইনমেন্ট জোনগুলোতে লকডাউন শুরু। বুধবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, সংক্রমণ কিছুটা বেড়ে যাচ্ছিল। তাই যে এলাকায় সংক্রমণ বাড়ছে, তা চিহ্নিত করে লকডাউন করা হচ্ছে। ৭ দিন পর পরিস্থিতি রিভিউ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

কনটেইনমেন্ট জোনগুলোতে কোনও অফিস-কাছারি-বাজার-দোকান খোলা থাকবে না। তবে সুফল বাংলার স্টল পৌঁছবে। জরুরি পরিষেবা প্রদানকারী ছাড়া আর কারও যাতায়াতের অনুমতি নেই। মুখ্যমন্ত্রীর আর্জি কনটেইনমেন্ট এলাকার মধ্যে অফিসগুলো যেন কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার অনুমতি দেয়। বাড়ি থেকে বেরোলেই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক বলেও এদিন ফের জানান মমতা। সেই সঙ্গে তাঁর আক্ষেপ, আমার পাড়ায় একজন দোকানদারকে আমি প্রতিদিন মাস্ক পরতে বলি, রোজ মাস্ক দিই, তাও সে মাস্ক পরে না। পুলিশকে এ ব্যাপারে একটু বেশি উদ্যোগী হতে হবে বলেও নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। মানুষকে মাস্ক পরাতে কি এবার জরিমানা চালু করতে হবে? যে লোকটার খাওয়ার টাকা নেই, তাঁকে মাস্কের জন্য ২ হাজার ফাইন করা কি উচিত? এতে কি সমস্যা সমাধান হবে? প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রীর। তিনি পুলিশকে বলেন, মাস্ক ছাড়া কাউকে বাইরে দেখলেই বাড়ি পাঠিয়ে দিন। মাস্ক ছাড়া বাইরে বেরোনো যাবে না।

এদিন রাজ্যের কনটেইনমেন্ট লকডাউন লিস্টের তালিকাও প্রকাশ করেছেন মমতা ব্যানার্জি। সেই সময়ই দক্ষিণ ২৪ পরগনার কনটেইনমেন্ট জোনের লিস্ট নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ছোট ছোট এলাকা ধরে কনটেইনমেন্ট জোন করা হয়েছে। ফলে সংবাদমাধ্যমের একাংশ যেভাবে বলছে আবার ঘরবন্দি, তা হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

আপনার বাড়ি বা অফিস কি পড়ছে লকডাউনের আওতায়? দেখে নিন কোথায় কোথায় রাজ্যের কনটেইনমেন্ট জোন যেখানে বৃহস্পতিবার থেকে লকডাউন।

দেখুন রাজ্যের কনটেইনমেন্ট জোনের তালিকা,

কলকাতার কনটেইনমেন্ট জোনের তালিকা

হাওড়া জেলায় কনটেইনমেন্ট জোনের তালিকা

উত্তর ২৪ পরগনায় কনটেইনমেন্ট জোনের তালিকা

রাজ্য সরকারের এগিয়ে বাংলা ওয়েবসাইটে এখনও পর্যন্ত এই তিন জেলার তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। এগিয়ে বাংলা ওয়েবসাইটে বাকি জেলাগুলোর তালিকা প্রকাশিত হলেই এখানে আপডেট করা হবে।

Comments
Loading...