উত্তরপ্রদেশের মতো বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতেও বসবেন এক যোগী, ২০২১ সালে বাংলার বিধানসভা ভোটে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদের মুখ হতে চলেছেন রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসী কৃপাকরানন্দ মহারাজ। কিছু দিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর ছড়ায়। ভাইরাল হওয়া সেই খবর নস্যাৎ করল রামকৃষ্ণ মিশন।
রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ মহারাজ জানান, এই খবর একেবারেই ভিত্তিহীন। একবর্ণও সত্যি নেই এতে। স্বামী বিবেকানন্দের নির্দেশ অনুযায়ী রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসীরা রাজনীতিতে অংশ নিতে পারেন না। সত্যমিথ্যা যাচাই না করে রামকৃষ্ণ মিশনকে জড়িয়ে এ ধরনের সংবাদ পরিবেশন দুর্ভাগ্যজনক।
মাসখানেক ধরেই ভাসছিল ২০২১ এর বিধানসভা ভোটে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদের মুখ হতে পারেন রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসী কৃপাকরানন্দজী। রাজ্য রাজনীতির গেরুয়া শিবিরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছিল দিলীপ ঘোষ-মুকুল রায়দের হাত ধরে বাংলা জয় যদি সম্ভব হয় তাহলেও কুর্সিতে বসবেন সেই রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসী। কিছু বিজেপি নেতা দাবি পর্যন্ত করা শুরু করেছিলেন উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথের পথ অনুসরণ করে এ রাজ্যেও বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হবেন স্বামী কৃপাকরনন্দ। যদিও এই খবর একেবারে ভিত্তিহীন বলে জানিয়ে দেওয়া হল।
কিন্তু যাঁকে ঘিরে গুঞ্জন, কে এই স্বামী কৃপাকরনন্দজি?
সন্ন্যাসী হওয়ার আগে স্বামী কৃপাকরনন্দের নাম ছিল দেবতোষ চক্রবর্তী। চমৎকার বক্তা হওয়ার পাশাপাশি তিনি শিল্পী ও গায়ক। রয়েছে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে দখল। সেই দেবতোষ চক্রবর্তীই আজকের স্বামী কৃপাকরানন্দ মহারাজ। রামকৃষ্ণ মিশনের বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসার কাজে যুক্ত স্বামী কৃপাকরনন্দজী বর্তমানে বারাণসী হাসপাতালে কর্মরত।
রামকৃষ্ণ মিশনের নিয়ম অনুযায়ী, সেখানকার সন্ন্যাসীরা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন না, অংশ নিতে পারেন না রাজনৈতিক কর্মসূচিতে। সেখানে স্বামী কৃপাকরনন্দ মহারাজ বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হতে চলেছেন, এই খবর গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন স্বামী কৃপাকরনন্দজী নিজেও।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us