সর্দার প্যাটেলের মূর্তি নির্মাণ প্রকল্পকে ‘ননসেন্স’ বলে কটাক্ষ ব্রিটিশ সাংসদের, ভারতকে আর্থিক সাহায্য বন্ধের দাবি

এত নেই রাজ্য, চোখে পড়ার মতো গরিব-বড়লোকের আর্থিক বৈষম্যের দেশে প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা খরচ করে বিশ্বের উচ্চত্তম ১৮২ মিটার সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের মূর্তি নির্মাণের যৌক্তিকতা নিয়ে এতদিন প্রশ্ন তুলছিল দেশের বিজেপি বিরোধী দলগুলি। সামাজিক বৈষম্য সৃষ্টির চক্রান্ত করছে যারা, তারাই আবার স্ট্যাচু অফ ইউনিটি করছে বলে নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্যে কটাক্ষও ধেয়ে এসেছিল। এবার এই বিশালাকার প্রকল্প নিয়ে কটাক্ষ করলেন এক ব্রিটিশ সাংসদ। সমালোচনা করলেন ভারতের। দীর্ঘদিন ভারতে রাজত্ব চালানো ব্রিটেনের বর্তমান অনেক সাংসদই ভারতের এই উদ্যোগকে ভালোভাবে নিচ্ছেন না বলে আগে কানাঘুষো শোনা গিয়েছিল। এবার তা সরাসরি প্রকাশ্যে এল।
ব্রিটিশ সাংসদ পিটার বোন জানিয়েছেন, ভারত নিজেদের টাকা নিয়ে কী করবে তা সম্পূর্ণ তাদের বিষয়। কিন্তু যে দেশ এত টাকা ব্যয় করে এই মূর্তি বানাতে পারে তাদের আর বিদেশি সাহায্যের প্রয়োজন নেই। তাই ব্রিটেনের উচিত অবিলম্বে ভারতকে আর্থিক সাহায্য প্রদান বন্ধ করা। এখানেই না থেমে গোটা প্রকল্পকে ‘টোটাল ননসেন্স’ বলেও মন্তব্য করেছেন পিটার।
জানা গেছে, ২০১২ সালে পাঁচ বছরের জন্য ধাপে ধাপে ভারতকে প্রায় ৯ হাজার ৪৯২ কোটি টাকার সাহায্য দিয়েছে ব্রিটেন। ব্রিটেনের দাবি, সামাজিক উন্নয়ন, মহিলাদের ক্ষমতায়ন ও বিকল্প শক্তি উৎপাদনে সাহায্য করতে তারা ভারতকে ওই টাকা দিয়েছিল। ব্রিটিশ সাংসদের দাবি, একটি মূর্তির জন্য এত টাকা খরচ করতে পারলে, ভারতের আর বিদেশি সাহায্যের প্রয়োজন নেই। এমনিতেই ভারত এখন বিশ্বের অন্যতম আর্থিক শক্তি ও দ্রুত আর্থিক বৃদ্ধির দেশ।
সংবাদপত্র ডেইলি মেলের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২ নভেম্বর, অর্থাৎ মূর্তি উন্মোচনের একদিন পরেই এই মন্তব্য করেছেন এই ব্রিটিশ সাংসদ। তাঁর কথায়, একদিকে আমাদের থেকে ১.১ বিলিয়ন পাউন্ডের (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৯৪০০ কোটি টাকা) সাহায্য নেবে ভারত, অন্যদিকে ৩ হাজার কোটি টাকা দিয়ে মূর্তি বানাবে, দুটো একসঙ্গে চলতে পারে না।
উল্লেখ্য, গত ৩১ শে অক্টোবর দেশের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের ১৪৪ তম জন্মদিনে গুজরাতের নর্মদা নদীর তীরে নির্মিত তাঁর এই ১৮২ মিটার উচ্চতার মূর্তিটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এটাই বিশ্বের সর্বোচ্চ স্ট্যাচু। যা উচ্চতায় চিনের স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধ (১৫৩ মিটার) ও আমেরিকার স্ট্যাচু অফ লিবার্টিকেও (৯৩ মিটার) হার মানিয়েছে।

Comments
Loading...