লোকসভায় গো হারা হেরেছি, আমি জানি এবার পুষিয়ে দেবেন, উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রী

পরিযায়ীদের ট্রেনের ভাড়া দিতে পারো না, চুরি-ডাকাতি করেছে যারা তাদের চার্টার্ড প্লেনে দিল্লি নিয়ে যাচ্ছ!

লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গে শোচনীয় ফল হয়েছিল তৃণমূলের। একটি আসনও জিততে পারেনি তারা। শিয়রে বিধানসভা ভোট, এবার কী হবে? উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনে শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে কোনও রাখঢাক না করে মমতা ব্যানার্জি বললেন, লোকসভায় গোহারা হেরেছি। কিন্তু বিধানসভায় আপনারা পুষিয়ে দেবেন, আমি জানি। 

সম্প্রতি জলপাইগুড়িতে জনসভা করতে এসেছিলেন মমতা ব্যানার্জি। এবিপিসি গ্রাউন্ডের ভরা সভায় তৃণমূল নেত্রী সরাসরি প্রশ্ন করেছিলেন, কী দোষ করেছিলাম যে একটা আসনও পেলাম না? যাদের ভোট দিয়েছেন তাদের চোখে দেখতে পান? তার দু’মাসের মধ্যে ফের উত্তরবঙ্গ সফরে এসে কার্যত একই কথার পুনরাবৃত্তি শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রীর গলায়। তবে এবার আত্মবিশ্বাসের ছাপ স্পষ্ট। সোমবার শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কের মঞ্চ থেকে কোনও রাখঢাক না করেই মমতা বললেন, লোকসভায় গোহারা হেরেছি। আমি জানি এবার পুষিয়ে দেবেন। একইসঙ্গে উত্তরবঙ্গের বিপুল হিন্দিভাষীদের আশ্যস্ত করে বলেন, আমি থাকতে আমার হিন্দিভাষী ভাই-বোনেদের কোনও চিন্তা করতে হবে না। পাশাপাশি গত ১০ বছরে উত্তরবঙ্গের জন্য কী কী উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে তারও খতিয়ান পেশ করেন মমতা।

কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়েও নিজের অসন্তোষ ব্যক্ত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায় এটা ভেকধারী সরকারের ভেকধারী বাজেট। বাংলায় রাস্তা তৈরির কথা বলা হয়েছে বাজেটে। মমতা ব্যানার্জির মন্তব্য, বাংলায় লোক দেখানো রাস্তা তৈরির নাটক না করে ওই টাকা কৃষকদের হাতে তুলে দিন। লকডাউনের প্রসঙ্গ তুলে কেন্দ্রকে আক্রমণ করে মমতা ব্যানার্জি বলেন, লকডাউনের সময় পরিযায়ীদের ট্রেনের ভাড়া দিতে পারো না, আর চুরি-ডাকাতি করেছে যারা তাদের চার্টার্ড প্লেনে দিল্লি নিয়ে যাচ্ছ! কত টাকা পেলে তোমরা বিদায় হবে? 

বাজেট ইস্যুতেই বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দেশ বেচে দিয়ে আবার দেশপ্রেমের কথা বলছ! লজ্জা করে না?

এদিন ফের একবার বাংলায় দেশের রাজধানী ফিরিয়ে আনার সওয়াল করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। 

Comments
Loading...