মেট্রো রেলের কাজের জন্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে মাঝেরহাট ব্রিজ, নবান্নে উচ্চ পর্যায়ের মিটিংয়ের পর জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

মেট্রো রেলের কাজের জন্যই মাঝেরহাট ব্রিজ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার নবান্নে এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পর জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই কারণে মেট্রো রেলকে আপাতত তাদের কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
এদিন নবান্নে মাঝেরহাট ব্রিজ নিয়ে মিটিং করেন মুখ্যমন্ত্রী। মিটিংয়ের পর মুখ্যমন্ত্রী জানান, মাঝেরহাটে ব্রিজের একাংশ ভেঙে পড়ার ঘটনার তদন্ত করবে মুখ্য সচিবের নেতৃত্বাধীন একটি হাই পাওয়ার ইনভেস্টিগেশন কমিটি। তদন্ত কেউ দোষী প্রমাণিত হলে তার বিরদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই তদন্ত কমিটি থাকছেন রাজ্য পুলিশের ডিজি, কলকাতার পুলিশ কমিশনার, রজ্যের বিশেষ নিরাপত্তা উপদেষ্টা, পূর্ত দফতরের প্রাক্তন চিফ ইঞ্জিনিয়ার প্রমুখ।
দুর্ঘটনার দিনই ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়েই রাজ্যের নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেছিলেন, মেট্রো রেলের কাজের জন্য মাঝেরহাট ব্রিজ ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে থাকতে পারে। যদিও রাজ্য সরকারের এই বক্তব্যের বিরোধিতা করে বুধবারই রেল দফতর জানায়, তাদের কাজের জন্য মাঝেরহাট ব্রিজ ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। কিন্তু এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী জানান, প্রাথমিক রিপোর্ট এসেছে। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী পাশে মেট্রো রেলের কাজ চলায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল মাঝেরহাট ব্রিজের কিছু অংশ। তাই তদন্ত শেষ না হওয়া এবং তার রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষকে কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।
এদিন তিনি আরও জানান, মাঝেরহাটের এই ব্রিজটি প্রায় ৫৪ বছরের পুরনো। যা পোর্ট ট্রাস্ট তৈরি করে পূর্ত দফতরকে হস্তান্তরিত করে। ব্রিজের নকশাও এখন পাওয়া যাচ্ছে না বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। এদিন তিনি বলেন, এই ব্রিজের অবস্থা জানতে গত দু’বছরে রাইটস, খড়গপুর আইআইটি, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কেউ এখনও পর্যন্ত পুরো রিপোর্ট দিতে পারেনি। তাই এবার নতুন বিশেষজ্ঞদের দায়িত্ব দেওয়া হবে। প্রয়োজনে অন্য রাজ্য কিংবা বিদেশের এক্সপার্টদের মতামত নেওয়া হবে।

Comments
Loading...