লাল ব্রিগেডে ছাত্র-যুবদের টানতে সিপিএমের হাতিয়ার টুম্পা সোনা!

কমিক্সে, গানে, স্লোগানে ব্রিগেডের প্রচার

দরজায় কড়া নাড়ছে একুশের বিধানসভা ভোট। আমজনতার মন পেতে সব দলই প্রচার কর্মসূচির উপর বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। নবান্ন দখলের লড়াইতে বাম-কংগ্রেস জোট ২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেড চলোর ডাক দিয়েছে।

জোটের নেতাদের দাবি লক্ষাধিক মানুষ ব্রিগেডে উপস্থিত হবেন। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির পাশাপাশি কংগ্রেসের রাহুল গান্ধী অথবা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বাঢড়াও ব্রিগেডের মঞ্চে উপস্থিত থাকতে পারেন বলে খবর। কানহাইয়া থাকবেন কি? জানা যায়নি।
ব্রিগেডে মাঠ ভরানোর লক্ষ্যে মিটিং মিছিলের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও অভিনব কায়দায় প্রচার চালাচ্ছে সিপিএম। সিপিএমের ফেসবুক পেজে তাদের রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে ছোটো ছোটো কমিক্স পোস্ট করা হচ্ছে। বিষয় ব্রিগেডের প্রচার হলেও, কমিক্স গুলি ইতিমধ্যেই নেটিজেনদের নজর কেড়েছে।

কমিক্স ছাড়াও ভোটমুখী বাংলায় সিপিএমের তরফে নতুন স্লোগান প্রকাশ করা হয়েছে। ‘হাল ফেরাও, লাল ফেরাও’ স্লোগান সম্বল করে রাজ্যজুড়ে ভোট যুদ্ধে নামতে চলছে সিপিএম।

[আরও পড়ুন- ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’, নতুন স্লোগান নিয়ে আসরে তৃণমূল]

এখানেই শেষ নয়। চমকের এখনও বাকি। স্লোগান, কমিক্সের পাশাপাশি তুমুল জনপ্রিয় টুম্পা সোনা গানের একটি ভার্সানও হইচই ফেলে দিয়েছে ছাত্র-যুবদের মধ্যে। টুম্পা সোনা গানের কথা পালটে ‘টুম্পা তোকে নিয়ে বিগ্রেড যাব, টুম্পা চেন ফ্লাগে মাঠ সাজাব / ভেবেছি চাকরি পাবো, বিয়েতে লোক খাওয়াবো, তারপর হঠাৎ দেখি, ঘুষের টাকায় মন্ত্রী চলে’, এই ভাবে অভিনব কায়দায় সিপিএম নিজেদের রাজনৈতিক বক্তব্য প্রকাশ করেছে গানটির মধ্যে দিয়ে। যদিও আলিমুদ্দিন স্ট্রিট অফিসিয়ালি এই গানের কৃতিত্ব দাবি করেনি। তবে ভোট বাজারে সিপিএমের কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মোবাইলেও ঘুরছে টুম্পা সোনার সিপিএম ভার্সন। তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশুর খেলা হবে ডিজে ভার্সনের মত সিপিএম যুব কর্মীদের তৈরী টুম্পা সোনার নিউ ভার্সানও ইতিমধ্যেই ভাইরাল। সব মিলিয়ে গানে-কবিতায়-স্লোগানে জমে উঠছে বামেদের ব্রিগেড।

Comments
Loading...