কাটমানি বিক্ষোভ অব্যাহত, অভিযোগ বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া, দিঘা-শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটির বিরুদ্ধে

কাটমানি নিয়ে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিক্ষোভ অব্যাহত জেলায় জেলায়। হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, কোথাও দুর্নীতির অভিযোগে পুর প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনলেন অধিকাংশ কাউন্সিলার, কোথাও কাটমানি চেয়ে তৃণমূল নেতার নামে দেখা গেল ফ্লেক্স, পোস্টার। কোথাও কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে, পুলিশের উপস্থিতিতেই মারধর তৃণমূল নেতাকে, কোথাও আবার থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের। এরই মধ্যে পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের কাছে হাওড়ার বালির তৃণমূল বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ করলেন প্রাক্তন কাউন্সিলার।
সোমবার দুর্নীতি ও স্বজন পোষনের অভিযোগে মুর্শিদাবাদের ডোমকলে তৃণমূলের পুর প্রধানের সৌমিক হোসেনের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন ২১ এর মধ্যে ১৩ জন দলীয় কাউন্সিলার। এদিকে, পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাটে ৩ তৃণমূল নেতার ছবি সহ পোস্টার দেখতে পাওয়া যায়। কোলাঘাট পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি রাজকুমার কুণ্ডু, তৃণমূল নেতা বাসুদেব রায় ও অতনু গুছাইতের নামে ওই পোস্টারে লেখা হয় কাটমানির টাকা অবিলম্বে ফেরত দিতে হবে সাধারণ মানুষকে। কোলাঘাট নাগরিকবৃন্দের নামে এই পোস্টার দেখতে পাওয়া গেলেও প্রকাশ্যে কেউ বিক্ষোভে সামিল হয়নি। যদিও তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, তাঁদের ভাবমূর্তি নষ্টের জন্য বিজেপি ষড়যন্ত্র করছে। অন্যদিকে, পূর্ব মেদিনীপুরেরই দীঘা ও শঙ্করপুরের সমুদ্র তীরবর্তী জায়গায় বিভিন্ন স্টল পাইয়ে দেওয়ার নাম করে তোলা নেওয়া এবং বিভিন্ন হোটেল থেকে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে সোমবার দীঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ ঘেরাও করে স্থানীয় বিজেপির নেতা কর্মীরা। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে নিয়ন্ত্রণে আসে পরিস্থিতি।
কাটমানি চাইতে গেল কেন পুলিশ বাধা দিচ্ছে, এই অভিযোগে বীরভূমের পাঁড়ুই থানা ঘেরাও করে বিজেপি। এদিকে বীরভূমের সাঁইথিয়ায় কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে পুলিশের সামনেই তৃণমূল বুথ সভাপতিকে বেধড়ক মারধর করে গ্রামবাসী। অভিযোগ, বিভিন্ন প্রকল্প থেকে টাকা সরিয়েছেন ওই তৃণমূল নেতা। এদিন কীর্ণাহার, সাঁইথিয়া বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। হাওড়ার বালির তৃণমূল বিধায়ক বৈশালি ডালমিয়ার বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ আনলেন তাঁর দলেরই এক প্রাক্তন কাউন্সিলার। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে ওই নেতার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার হুমকি দেন বৈশালি ডালমিয়া।

Comments are closed.