শিক্ষার অভাব আছে দিলীপের, বিজেপি রাজ্য সভাপতিকে কটাক্ষ সৌগতর

'ওরা ভাবছে অভিষেককে আক্রমণ করে মমতাকে আক্রমণ করা যায়' বিজেপিকে তোপ তৃণমূল সাংসদের

দিলীপ ঘোষের শিক্ষার অভাব বোঝা যায়। এভাবেই বুধবার তৃণমূল ভবনের সাংবাদিক বৈঠক থেকে বিজেপির রাজ্য সভাপতিকে বিঁধলেন সাংসদ সৌগত রায়।

বিধানসভা ভোটের এখনও কয়েক মাস বাকি। কিন্তু ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে আসার দাবি তুলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যা নিয়ে এদিন তাঁকে তীব্র কটাক্ষ করলেন সৌগত। তৃণমূল সাংসদের কথায়, দিলীপ ঘোষের শিক্ষার অভাব বোঝা যায়। ভোট ঘোষণার আগে থেকে কখনও কেন্দ্রীয় বাহিনী নামানো যায় না। সেই ক্ষমতা কেন্দ্রের হাতে নেই। তিনি যোগ করেন, আইন-শৃঙ্খলা রাজ্যের বিষয়। তাই কেন্দ্রীয় বাহিনী নিযুক্ত করতে গেলে রাজ্য সরকারের অনুমতি বা আবেদন দরকার হয়। দিলীপের এই দাবি অবান্তর ও অবাস্তব বলে কটাক্ষ করেন তিনি।

পাশাপাশি, বিজেপি নেতারা বারবার অভিষেক ব্যানার্জিকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করছেন বলে অভিযোগ করেন সৌগত। তাঁর কটাক্ষ, ওরা (বিজেপি) ভাবছে যে অভিষেককে আক্রমণ করে মমতাকে আক্রমণ করা যায়। কিন্তু অভিষেক কখনও দাবি করেননি যে তিনি তৃণমূলের মুখ, মমতাকেই মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হিসেবে প্রচার করছেন। এরপরেই ফের দিলীপ ঘোষকে নিশানা করে সৌগতর মন্তব্য, ‘এতো উষ্মা কেন? অভিষেকের গ্ল্যামার বা অ্যাট্রাকটিভ ক্ষমতা বেশি বলে?’

অভিষেককে কটাক্ষ করে দিলীপের মন্তব্য ছিল কোলে চড়ে রাজনীতি করে এসেছেন তিনি। এর পাল্টা হিসেবে সৌগতর তোপ, দিলীপের রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা অনেক কম। উনি ২০১৫ সালে বিজেপি সভাপতি হওয়ার আগে কোনওদিন রাজনীতিই করেননি। ওঁর আগে থেকেই রাজনীতিতে আছেন অভিষেক। সাংসদ হিসেবেও দিলীপের চেয়ে পুরনো অভিষেক। তাই বারবার কেন অভিষেককে কেন ব্যক্তিগত আক্রমণ করা হচ্ছে প্রশ্ন সৌগত রায়ের।

এদিন গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে তৃণমূল সাংসদের কটাক্ষ, বিজেপি মূলত ব্যবসায়ীর দল। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে কিছু রাজনৈতিক ব্যবসায়ী। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করে তিনি বলেন গত ৬ বছরে কোনও প্রতিরক্ষা প্রকল্প শুরু হয়নি। ৪৫ বছরে রেকর্ড বেকারত্ব দেখা গিয়েছে ভারতে। যে পিএম কিষান প্রকল্প নিয়ে রাজ্য সরকারকে খোঁচা দেয় বিজেপি, সেই প্রকল্পের ৪৮ শতাংশ উপভোক্তা কোনও টাকা পাননি বলে দাবি সৌগতর। তাঁর অভিযোগ, প্রকল্পের বরাদ্দের মাত্র ৪১ শতাংশ খরচ হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রের বুলেট ট্রেন প্রকল্পের খরচ নিয়েও কটাক্ষ ছুড়ে দেন। বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার বহু প্রচার করে যেসব প্রকল্প চালু করেছে তার কোনওটারই লক্ষ্য পূরণ হয়নি।

Comments
Loading...