আজ নবান্নের বৈঠক নিয়ে জটিলতা, সরকারি আমন্ত্রণ পাননি, নয়া অভিযোগ জুনিয়ার ডাক্তারদের

স্বাস্থ্য সঙ্কট মেটাতে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে জুনিয়ার ডাক্তারদের বৈঠক নিয়ে সোমবার সকালে ফের তৈরি হল জটিলতা। তাঁরা সরকারিভাবে আমন্ত্রণ পাননি এবং সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রকাশ্য বৈঠক করতে হবে, এই দুই দাবি হাজির করলেন জুনিয়ার ডাক্তাররা। ফলে সমস্যা সমাধানে আদৌ তাঁদের আন্তরিকতা আছে কিনা তা নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠে গেল।
এরই মধ্যে রবিবার বিজেপি নেত্রী এবং প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষের এক টেলিফোন বার্তার প্রচারকে কেন্দ্র করে নতুন কিছু প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ফোনের কথোপকথনে শোনা যাচ্ছে, ভারতী ঘোষ জুনিয়ার ডাক্তারদের আন্দোলন নিয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন। যদিও বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দাবি করেছেন, এই কথোপকথন ভুয়ো।
সাতদিন ধরে টানা আন্দোলনের পর, রবিবার আন্দোলনকারী জুনিয়র চিকিৎসকরা বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিলেন, সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি তাঁরা।
কয়েকদিন ধরে চিকিৎসা পরিষেবায় রাজ্যজুড়ে যে অচালাবস্থা তৈরি হয়েছে, তা কাটার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল জুনিয়ার ডাক্তারদের এই বিবৃতিতে। তবে আলোচনায় বসার ব্যাপারে তাঁদের বেশ কয়েকটি শর্ত ছিল। মুখ্যমন্ত্রীর নির্বাচিত জায়গায় বৈঠক করতে রাজি হলেও, রাজ্যের প্রত্যেক মেডিকেল কলেজের কয়েকজন করে প্রতিনিধিকে উপস্থিত থাকতে দিতে হবে এবং সাংবাদিকদের সামনে এই বৈঠক করতে হবে বলে দাবি করেছিলেন ধর্মঘটী চিকিৎসকরা। সূত্রের খবর, প্রতি মেডিকেল কলেজ থেকে দু’জন করে প্রতিনিধি উপস্থিত থাকার ছাড়পত্র দিলেও, সংবাদমাধ্যমের সামনে বৈঠক করার ব্যাপারে বেঁকে বসে রাজ্য সরকার।
কিন্তু সোমবার সকালে আন্দোলনকারী জুনিয়র চিকিৎসকরা অভিযোগ করেছেন, নবান্নে বৈঠক করার ব্যাপারে সকাল পর্যন্ত কোনও সরকারি আমন্ত্রণ পাননি তাঁরা। ফলে নতুন করে জট পাকানোর আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী ও জুনিয়র চিকিৎসকদের বৈঠক হবে কিনা তা নিয়ে ধন্দ তৈরি হয়েছে ধর্মঘটী চিকিৎসকদের নতুন প্রতিক্রিয়ায়।

Comments are closed.