দিনের পর দিন ধরে কেন্দ্রের অস্বস্তি বাড়িয়ে চলা প্রাক্তন সিবিআই প্রধান অলোক ভার্মার বিরুদ্ধেই কি এবার মামলা শুরু করবে সিবিআই? পাশাপাশি তাঁর বিরুদ্ধে কি শুরু হতে পারে বিভাগীয় তদন্ত? এমনই নানা ইঙ্গিত মিলছে বিভিন্ন সূত্র থেকে।
সূত্রের খবর, সেন্ট্রাল ভিজিলেন্স কমিশন (সিভিসি) নাকি অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে কেন্দ্রের কাছে বিভাগীয় তদন্তের সুপারিশ করতে চলেছে। পাশাপাশি ফৌজদারি তদন্তেরও সুপারিশ করা হবে সিভিসি’র তরফে। সিভিসির দাবি, প্রাথমিক তদন্তে নাকি তারা এমন কিছু কথোপকথনের কল রেকর্ড পেয়েছে, যা থেকে অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে যথেষ্ট সন্দেহর অবকাশ থেকে যায়। মইন কুরেশি মামলায়, অন্যতম অভিযুক্ত সতীশ সানা নাকি সিবিআই-এর শীর্ষ আধিকারিককে প্রায় ২-৩ কোটি টাকা ঘুষ দিয়ে এই মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু কে সেই শীর্ষ সিবিআই আধিকারিক? সিভিসি রিপোর্টে তাঁর নাম না থাকলেও, তাঁদের দাবি, সিবিআই-এর ১ নম্বর বলে এক ব্যক্তির নাম ওই একাধিক কল রেকর্ডে উঠে এসেছে। তাই সেই ১ নম্বর প্রাক্তন সিবিআই প্রধান অলোক ভার্মা কিনা, তা জানতে আরও তদন্ত প্রয়োজন।
উল্লেখ্য, মইন কুরেশি মামলাতেই প্রাক্তন সিবিআই প্রধান অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ অনেছিলেন সিবিআই-এর অপসারিত দু’নম্বর রাকেশ আস্থানা। আবার আস্থানার বিরুদ্ধে ওই একই মামলায় ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠায়, তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেন ভার্মা। এই নিয়েই শুরু হয়েছিল সিবিআই-এর অভ্যন্তরের নজিরবিহীন সংঘাতের।
প্রায় প্রতিদিন নয়া মোড় নিচ্ছে অলোক ভার্মা কেস। এই পরিস্থিতিতে সিভিসি যদি অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে তদন্তের সুপারিশ করে সেক্ষেত্রে প্রাক্তন সিবিআই প্রধানের গ্রেফতারির আশঙ্কাও করছেন অনেকে। কারণ, অলোক ভার্মা যেভাবে আস্থানার বিরুদ্ধে তদন্ত করেছেন এবং দিনের পর দিন কেন্দ্রের অস্বস্তির কারণ হয়ে উঠেছেন তাতে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নেওয়ার ইঙ্গিত মিলছে বিভিন্ন সূত্র থেকে।

You may also like