সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ’র বিরুদ্ধে আয়োজিত এক মিছিলে অংশ নেওয়ায় এবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠরত পোল্যান্ডের এক পড়ুয়াকে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি কলকাতায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী মিছিলে অংশ নিয়েছিলেন কামিল সিডসিনস্কি নামের ওই পোল্যান্ডের পড়ুয়া। এরপরই তাঁকে নোটিস পাঠানো হয় ফরেনার রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিস বা এফআরআরও’র তরফে। কেন্দ্রীয় সরকারের এই বিভাগটি মূলত দেশ এবং রাজ্যের বিভিন্ন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিদেশিদের আবেদনের রেজিস্ট্রেশন খতিয়ে দেখে। এই বিভাগটি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনস্থ।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, গত ২২ ফেব্রুয়ারি কামিলকে  নির্দেশ দেওয়া হয় এফআরআরও’র কলকাতা দফতরে গিয়ে আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করার জন্য। নির্দেশ মেনে কামিল তাদের সঙ্গে দেখা করলে তাঁকে ভারত ছাড়ার নোটিস দেওয়া হয়। একই কারণে সম্প্রতি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বাংলাদেশী ছাত্রীকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আফসারা আনিকা মিম নেমের ওই ছাত্রী সিএএ’র বিরুদ্ধে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন।
যাদবপুরের এই ছাত্রকে দেশ ছাড়ার যে নোটিস দেওয়া হয়েছে সেখানে বলা হয়েছে, একজন বিদেশি নাগরিক হিসাবে ছাত্র ভিসা নিয়ে সে পড়াশোনা করতে এসেছে এদেশে। কিন্তু এদেশে এসে সে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়েছে, তাই আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে তাঁকে দেশ ছাড়তে হবে।
জানা গিয়েছে, মৌলালিতে সিএএ’র বিরুদ্ধে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় অংশ নিয়েছিলেন কামিল। পরে সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছিল তাঁর একটি সাক্ষাৎকারও। ওই সাক্ষাৎকারও ছাত্রটির বিরুদ্ধে গিয়েছে। সাক্ষাৎকারের একটি কপি কেউ পাঠিয়ে দেয় এফআরআরও’তে। তারপরেই বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের এই বিভাগটি। যদিও এ বিষয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Governor Home Department Tweet
BJP Leader Agnimitra Paul