‘মেয়েরা জাতির সম্পদ, ৭ বছরে ৬৭ লক্ষ ছাত্রীর ক্ষমতায়ন’, কন্যাশ্রী দিবসে ট্যুইট মমতা ব্যানার্জির

কন্যাশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে গত সাত বছরে রাজ্যের ৬৭ লক্ষ ছাত্রীর ক্ষমতায়ন হয়েছে। কন্যাশ্রী দিবসে ট্যুইট করে শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।

শুক্রবার নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে মমতা ব্যানার্জি লেখেন, আজ কন্যাশ্রী দিবস। ২০১৩ সালে শুরু হওয়া কন্যাশ্রী প্রকল্প রাষ্ট্রসঙ্ঘ থেকে সেরার খেতাব জিতেছে। এই অনন্য প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় রাজ্যের ৬৭ লক্ষ মেয়ের ক্ষমতায়ন হয়েছে। মমতা লেখেন, মেয়েরা জাতির সম্পদ, এবং আমরা তাদের জন্য গর্বিত।

প্রতি বছর কন্যাশ্রী প্রকল্পের বর্ষপূর্তি পালন করা হয় রাজ্যজুড়ে। মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প কন্যাশ্রীর বর্ষপূর্তিতে এ বছর করোনার কারণে আগের মতো অনুষ্ঠান হয়নি।

কন্যাশ্রী প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য হল, আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া গরিব দুঃস্থ পরিবারের মেয়েদের উচ্চশিক্ষার জন্য আর্থিক সাহায্য করা। অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে আঠারো বছর বয়সের আগে মেয়েদের বিয়ে আটকানোই প্রকল্পের উদ্দেশ্য। যাতে তাঁরা পড়াশোনা করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে।

২০১৩ সালের ১৪ অগাস্ট রাজ্যে কন্যাশ্রী প্রকল্প প্রচারের জন্য অনুষ্ঠান হয়। কলকাতায় সেই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মমতা। জেলাগুলিতে সরকারিভাবে সচেতনতা প্রচারের আয়োজন করা হয়। এ পর্যন্ত সাড়ে সাত হাজার কোটি টাকার বেশি এই প্রকল্পে খরচ করেছে রাজ্য সরকার।

২০১৭ সালের জুন মাসে, রাষ্ট্রসঙ্ঘ তাদের সর্বোচ্চ জনসেবা পুরস্কারে সম্মানিত করে মমতার কন্যাশ্রী প্রকল্পকে।

Comments
Loading...