বিচারপতি কৌশিক চন্দের এজলাসেই নন্দীগ্রাম গণনা মামলার শুনানি

বৃহস্পতিবার বিচারপতি কৌশিক চন্দর বেঞ্চেই হবে নন্দীগ্রাম গণনা মামলার শুনানি। মামলাকারী মমতা ব্যানার্জির আপত্তি সত্ত্বেও অন্য বেঞ্চ সরানো হল না নন্দীগ্রাম গণনা মামলা।

গত শুক্রবার হাই কোর্টের বিচাপতি কৌশিক চন্দর এজেলাসে নন্দীগ্রাম মামলার শুনানি শুরু হয়। মামলাকারী মমতা ব্যানার্জি আদালতে উপস্থিত না থাকায় কৌশিক চন্দ মামলার পরবর্তী তারিখ দেন।

অন্যদিকে কৌশিক চন্দের বেঞ্চে নন্দীগ্রামের মত হাইপ্রোফাইল মামলা যাওয়ায় আইনজীবীদের একাংশ আপত্তি তোলেন। তাঁদের দাবি, কৌশিক চন্দ এক সময়ে বিজেপির সদস্য ছিলেন। আইনজীবী হিসেবে বিজেপির হয়ে একাধিক মামলাও লড়েছেন। বিচারের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে।

তৃণমূল নেতা ডেরেক ও’ব্রায়ান, কুণাল ঘোষেরাও রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে বিজেপির অনুষ্ঠানে কৌশিক চন্দের উপস্থিত থাকার ছবি দেখিয়ে দাবি করেন, বিচারপতি চন্দ বিজেপি দরদী।

বিতর্কের মাঝেই মমতা ব্যানার্জির আইনজীবী সঞ্জয় বসু হাই কোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দলকে চিঠি লিখে আবেদন জানান, বিচারপতি চন্দর বেঞ্চ থেকে যেন অন্যত্র মামলা স্থানান্তরিত করা হয়। বুধবার রাতে জানা যায় মামলা পুরোনো বেঞ্চেই শুনানি হবে।

নন্দীগ্রামের ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে এই অভিযোগ মমতা ব্যানার্জি হাইকোর্টে ইলেকশন পিটিশন দাখিল করেন। ২ মে ভোটের ফলের পর তিনি জানিয়েছিলেন নন্দীগ্রামে ভোট গণনা নিয়ে কোর্টে যাবেন। সেই মতো হাইকোর্টে মামলা করেন মমতা ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার হাইভোল্টেজ এই মামলার শুনানি বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে।

Comments
Loading...