‘মির্জাপুর’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই নিকিতাকে করেছেন খুন, জানালেন অভিযুক্ত তৌসিফ

নিকিতা তোমারকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করায় অভিযুক্ত তৌসিফ জানালেন, তিনি অনলাইন ওয়েব সিরিজ ‘মিরজাপুর’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। সেখানে দেখানো হয়, প্রধান অভিনেতা একটি মেয়েকে গুলি করে খুন করেন তাঁর প্রেম প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার জন্য। সূত্রের খবর, অভিযুক্ত তৌসিফকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় পুলিশের কাছে তিনি স্বীকার করেছেন যে, তিনি ওয়েব সিরিজ মির্জাপুরের ‘মুন্না’ চরিত্র থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। অভিযুক্ত জানান, তিনি এই ওয়েব সিরিজটি দেখার পরই নিকিতা তোমারকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন।

তৌসিফের জিজ্ঞাসাবাদের সময়ে ক্রাইম ব্রাঞ্চকে তিনি জানিয়েছেন, যে তিনি প্রথমে বুঝতে পারেননি নিকিতার সঙ্গে কী করা উচিত হবে। তবে সদ্য প্রকাশিত ওয়েব সিরিজ মির্জাপুর দেখার পর তিনি সিদ্ধান্ত নেন নিকিতাকে হত্যা করার। ঠিক অনেকটা মির্জাপুরের ‘মুন্না’ চরিত্রের মত। অভিযুক্তকে জেরা করাকালীন আরো অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। জানা গেছে, নিকিতা তোমার কে খুনের পিছনে তৌসিফকে সাহায্য করেছিলেন তাঁর মামা। তৌসিফের মামা ইসলামউদ্দিন, যিনি নিজে একজন কুখ্যাত অপরাধী এবং বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন, তিনি জেলের ভিতর থেকে তৌসিফের জন্য একটি দেশীয় পিস্তলের ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন।

তৌসিফের প্রেম প্রস্তাব ও ইসলাম ধর্ম গ্রহণের দাবি অস্বীকার করাতেই এইরূপ ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটে ২১ বছর বয়সী নিকিতার সঙ্গে। ২৭ অক্টোবর বল্লবগড়ের আগরওয়াল কলেজের বাইরে দুজন মিলে নির্মমভাবে মাথায় গুলি করে হত্যা করে তাকে। দুই আসামির মধ্যে একজন হল তৌসিফ। তৌসিফ জানান, আমাজন প্রাইমের ওয়েব সিরিজ মির্জাপুর দেখেই নিকিতাকে হত্যা করেছেন তিনি। জানা যাচ্ছে, ২০১৮ সালে তৌসিফ আরও একটি মেয়েকে অপহরণ করেছিলেন।

মর্মান্তিকভাবে, পুরো ঘটনাটি ধরা পড়ে ক্যামেরায়। নিকিতাকে নৃশংসভাবে হত্যার ভিজ্যুয়ালগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসার পরই ভাইরাল হয়ে যায়। তৌসিফ ও তাঁর সহযোগী রেহানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

Comments
Loading...